তালিবানি উদ্বেগ কি কাশ্মীরেও? জঙ্গি নাশকতা বাড়ার আশঙ্কা

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আফগানিস্তানে তালিবানি (Taliban) উত্থানের প্রভাব কি পড়বে ভারতের জম্মু-কাশ্মীরেও? পাকিস্তানের (Pakistan) সঙ্গে তালিবানি সংযোগ নতুন করে ভাবতে বাধ্য করছে দেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলিকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উপত্যকার সাম্প্রতিক পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানালেও, গোয়েন্দা সংস্থাগুলি বলছে তালিবানের ক্ষমতায় ফেরাকে কাজে লাগিয়ে জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি নাশকতা বাড়াতে পারে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই (ISI)। পাশাপাশি জইশ-ই-মহম্মদের সঙ্গে তালিবানের ঘনিষ্ঠতা উপত্যকার নিরাপত্তাকে বড়সড় প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছে।

পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই প্রত্যক্ষ ভাবে আফগান তালিবানকে সাহায্য করছে বলে খবর সামনে এসেছে। পাকিস্তানের শাসকদলের এক নেত্রীই দাবি করেছিলেন আফগানিস্তান দখলে তালিবানকে সাহায্য করেছে ইসলামাবাদ। বিনিময়ে কাশ্মীর দখলে পাকিস্তানের পাশে দাঁড়াবে তালিবান। আফগানিস্তানে জঙ্গি পরিস্থিতি নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জ একটি রোপ্রট দিয়েছিল, তাতে বলা হয়েছিল, পাক জঙ্গি সংগঠন ‘তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান’ (টিটিপি)-র প্রায় ছ’হাজার জঙ্গি এখন সীমান্ত পেরিয়ে আফগানিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে। তাছাড়া, মধ্য ও পশ্চিম এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে আরও হাজার চারেক জঙ্গি রয়েছে আফগানিস্তানে। তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান জঙ্গি সংগঠনকে কাজে লাগিয়ে ভারতের কাশ্মীরে নাশকতার ষড়যন্ত্র করা হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কাশ্মীরি যুবকদের তুলে নিয়ে গিয়ে জঙ্গি দলে ঢোকানোর চেষ্টাও হতে পারে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর।

গত দেড়-দু্’বছরে জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে অনেকটাই ভাটা পড়েছে। অনুপ্রবেশও কমেছে। উপত্যকায় একের পর এক সেনা অভিযানে খতম হয়েছে জইশ, লস্করে সক্রিয় কম্যান্ডাররা। কিন্তু তালিবানের ক্ষমতা দখলে উপত্যকার পরিস্থিতি অনেকটাই পাল্টে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলি রিপোর্ট দিয়েছে, তালিবানের বেশ কিছু ভাড়াটে জঙ্গিকে জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি কার্যকলাপে গতি আনতে পাঠানোর পরিকল্পনা নিতে পারে তারা। কুড়ি বছর আগে ওই প্রবণতা লক্ষ্য করা গিয়েছিল। তাছাড়া তালিবান মাথা মোল্লা আবদুল গনি বরাদরের সঙ্গে ইতিমধ্যেই দেখা করে কথাবার্তা বলেছে জইশ প্রধান মৌলানা মাসুদ আজহার। সূত্রের দাবি, ভারতে জম্মু-কাশ্মীরে জইশ সংগঠনের ভিত আর পাকাপোক্ত করে নাশকতার চালানোর উপায় খুঁজতেই তালিবানের সাহায্য চাইতে গেছে মাসুদ।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.