পরাক্রমী যুদ্ধজাহাজ ‘আইএনএস বিক্রান্ত’ আসছে নৌবাহিনীতে, দেশের তৈরি প্রথম বিমানবাহী রণতরী

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অপেক্ষা আর মাত্র এক বছরের। করোনার কারণে দেরি হল বটে, তবে আগামী বছরের মাঝামাঝিই ভারতীয় নৌবাহিনীর অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাবে দেশের তৈরি প্রথম এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ার আইএনএস বিক্রান্ত। এতদিন দেশের একমাত্র বিমানবাহী রণতরী বা এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ার ছিল আইএনএস বিক্রমাদিত্য। এটি রাশিয়ার থেকে কিনেছিল ভারত। এবার প্রথম দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি বিমানবাহী রণতরী নৌসেনার অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে।

কেরলের কোচিতে দক্ষিণ নৌকম্যান্ডের একটি অনুষ্ঠানে আইএনএস বিক্রান্তের অন্তর্ভুক্তির বিষয়টা নিশ্চিত করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি জানান, ২০২২ সালের মাঝামাঝি পূর্ব সেনা কম্যান্ডে এই রণতরী যোগ দেবে। দেশের তৈরি প্রথম এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ার আত্মনির্ভর ভারত গড়ার লক্ষ্যে অন্যতম বড় পদক্ষেপ।

INS Vikrant will be commissioned by 2022, says Vice Admiral Chawla- The New  Indian Express

কোচির শিপইয়ার্ডে তৈরি করা হয়েছে এই রণতরী। ওজন প্রায় ৪০ হাজার টন। এটি বিমানবাহী রণতরী ‘বিক্রান্ত’ ক্লাসের প্রথম যুদ্ধজাহাজ। বিক্রান্ত কথার অর্থ হল সাহসী বা পরাক্রমী। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানের সঙ্গে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে পূর্ব-পশ্চিম দুই সীমান্তেই যখন লড়ছে ভারত, তখন পরাক্রম দেখিয়েছিল ভারতের রণতরী আইএনএস বিক্রান্ত। ৩৬ বছর ভারতীয় নৌসেনার হয়ে কাজ করার পর পুরনো হয়ে পড়া বিক্রান্তকে বাতিল করে দিতে হয় ১৯৯৭ সালে। ভারতের গর্ব সেই যুদ্ধজাহাজের স্মরণেই দেশের প্রথম এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ারের নামও রাখা হয়েছে আইএনএস বিক্রান্ত। ২৬২ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৬০ মিটার প্রস্থের এই বিমানবাহী রণতরীর ডেকে মিগ-২৯ এর মতো যুদ্ধবিমান ওঠানামা করতে পারবে।

Navy to get aircraft carrier Vikrant, missile destroyer Visakhapatnam in  2021 | Latest News India - Hindustan Times

আইএনএস বিক্রান্তের নকশা তৈরি হয় ১৯৯৯ সালে। ২০১৩ সাল থেকে এটির ট্রায়াল শুরু হয়েছিল। আশা করা হয়েছিল ২০১৮ সালের মধ্যে নৌসেনায় যোগ দিতে পারবে এই রণতরী। গত বছর অক্টোবরে সমুদ্রে পরীক্ষামূলকভাবে এর বেসিন ট্রায়ালও সফল হয়েছিল। কিন্তু করোনার কারণে নৌসেনায় এর অন্তর্ভুক্তি পিছিয়ে যায়।

এতদিন ভারতে একমাত্র বিমানবাহী রণতরী ছিল আইএনএস বিক্রমাদিত্য। ২০১৪ সালে রাশিয়ার থেকে এই এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ার কেনে ভারত। ২৮৪ মিটার লম্বা ও ৬০ মিটার উচ্চতার এই রণতরীর ওজন প্রায় চার হাজার টন। এই রণতরীতে একসঙ্গে ৩০টি মিগ যুদ্ধবিমান ও ৬টি হেলিকপ্টার রাখা যেতে পারে। এমন বিমানবাহী রণতরী পৃথিবীর খুব কম দেশেই আছে। ভারতের নিজস্ব প্রযুক্তিতে বানানো তেজস যুদ্ধবিমানের ন্যাভাল ভার্সনকে এই রণতরীর ডেকে অ্যারেস্টেড ল্যান্ডিং করানো হয়েছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.