সোফায় বসে রামায়ণ, ছবি দিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, বিদ্রুপে টুইট মুছতে হল জাভড়েকরকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুক্রবার কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল, দূরদর্শনের পর্দায় ফের দেখা যাবে রামায়ণ। লকডাউনের বন্দিদশায় মানুষের কাছে অন্য স্বাদ পৌঁছে দিতেই উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু শনিবার সকালে রামায়ণ শুরু হওয়ার পর একটি ছবি ঘিরে হইহই পড়ে গেল সোশ্যাল মিডিয়ায়। খোদ কেন্দ্রীয় তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরকে এমন ট্রোলড হতে হল যে টুইট থেকে ছবি সরাতে বাধ্য হলেন মন্ত্রী।

শনিবার সকাল পৌনে দশটা নাগাদ একটি ছবি টুইট করেন জাভড়েকর। পরনে পুমার স্পোর্টস জ্যাকেট, নীল-সাদা ট্র্যাক প্যান্ট আর পায়ে স্লিপার পরে গদিওয়ালা সোফায় বসে আছেন মন্ত্রী। প্রকাণ্ড এলইডি টিভিতে চলছে রামায়ণ। সেই ছবিতে জাভড়েকর লেখেন, “আমি কিন্তু রামায়ণ দেখছি। আপনারা দেখছেন তো?”

বিতর্ক তৈরি হতে বেশিক্ষণ সময় লাগেনি। ব্যাপক আক্রমণের মুখে পড়েন মন্ত্রী। পরিস্থিতি বেগতিক দেখেই টনক নড়ে তাঁর। কিছুক্ষণের মধ্যেই উধাও হয় সেই ছবি। তার বদলে জ্বলজ্বল করতে থাকেন কর্মব্যস্ত প্রকাশ জাভড়েকর। এক আধিকারিকের সঙ্গে বসে কাগজপত্র দেখার ছবি টুইট করেন মন্ত্রী। সেই ছবি দেখে আরও বিদ্রুপ ধেয়ে আসে তাঁর দিকে।

অনেকে জাভড়েকরের টুইটের নীচে লেখেন, দেশের হাজার পরিযায়ী শ্রমিক আতঙ্কে রাস্তায় বেরিয়ে মাইলের পর মাইল হাঁটছেন আর মন্ত্রী কিনা সোফায় বসে পায়ের উপর পা তুলে রামায়ণ দেখছেন! কেউ আবার ঘরমুখী পরিযায়ী শ্রমিকদের ছবির সঙ্গে জাভড়েকরের ছবি জুড়ে দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেন। কেউ লেখেন, “আজ রামায়ণ দেখেছেন কাল থেকে টিভিতে শাহরুখ খানের সার্কাস আর ব্যোমকেশ দেখবেন। দেশের মানুষ সঙ্কটে আর মন্ত্রীমশাইয়ের ফূর্তির শেষ নেই!” সব মিলিয়ে ঘোরতর অস্বস্তিতে পড়ে যান জাভড়েকর। বাধ্য হয়ে মুছে ফেলেন টুইট।

যদিও অনেকের বক্তব্য, কিছু লোক সমালোচনা করতে হবে বলেই করেছেন। এটার মধ্যে কোনও অন্যায় নেই। তাঁদের বক্তব্য, জাভড়েকর তো তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী। ওঁর যা কাজ তাই করেছেন। মানুষকে ঘরে ‘এনগেজ’ রাখতে উদ্যোগ নিয়েছেন এবং উৎসাহ দিয়েছেন। এতে রে রে করে ওঠার মতো কিছুই হয়নি। প্রত্যেকের আলাদা আলাদা দায়িত্ব আছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের ব্যাপারে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক রাজ্যগুলিকে অ্যাডভাইজারি পাঠিয়েছে। সব কিছুর সঙ্গে জুড়ে দিয়ে সমালোচনা করা মোটেই ঠিক নয়।

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.