শুটআউট, ম্যানহোলে মহিলার আড়াই ঘণ্টা আটকে থাকার ঘটনায় নিউটাউনবাসী আতঙ্কিত

সুব্রত কুমার সাহা

মাস কয়েক আগে নিউটাউনে (Newtown) এক শুট আউটের ঘটনা ঘটে গেল। পাঞ্জাবের দুষ্কৃতীরা এখানে এসে আত্মগোপন করেছিল। ঘটনাচক্রে, আমাদের আবাসনেই এই ঘটনা ঘটে। চোখের সামনে গুলির লড়াই দেখতে হয়েছে।

নিউটাউনে অনলাইন ক্রাইমের জামতারা গ্যাং সক্রিয় বলে ক’দিন আজ জানতে পারলাম।

তারপর মঙ্গলবারের ঘটনা। খোলা ম্যানহোলে পড়ে আড়াই ঘণ্টা আটকে থাকতে হল একজন মহিলাকে। এইসব ধারাবাহিক ঘটনায় আমরা নিউ টাউনবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়ছি দিনকে দিন।

এদিনের ঘটনা নিছকই একটি দুর্ঘটনা নয়। বরং এটা একটা মস্ত বড় প্রশাসনিক গাফিলতির দৃষ্টান্ত। ম্যানহোলে পড়ে যাওয়ার আসল কারণ তো জল জমে যাওয়া। নিউটাউনের মতো আধুনিক শহরেরও এখন কলকাতার প্রতিচ্ছবি।

বছর বারো এই শহরে আছি। বিগত কয়েকবছর ধরে দেখছি বৃষ্টি হলেই জল জমে যাচ্ছে। সম্ভবত গত বছর কিংবা তার আগের বছর ভয়াবহ পরিস্থিতি হয়েছিল। গোটা শহরটাই জলে ডুবে যায়।

এই সমস্যার কারণ কারও কাছে অজানা নয়। কারণ হল দুটি। প্রথম কারণ, নিউটাউনে ভূগর্ভস্থ নালা আছে তা দীর্ঘদিন পরিস্কার হয়নি। সেখানে পলি জমে আছে। রাস্তার নীচে থাকা নালা পলি মুক্ত না করা গেলে জল তো জমবেই।

আরও পড়ুন: সালানপুরে সাজোসাজো রব, শুরু হল ঘাটওয়াল সম্প্রদায়ের কর্মা উৎসব

দ্বিতীয় কারণ, বাগজলা খাল ঠিক মতো সংস্কার না হওয়া। যেটুকু সংস্কারের কাজ হয় তা আবার বর্ষাকালে। তখন তো বোঝারই উপায় থাকে না কোথায় কতটা পলি জমে আছে।

আশা করি, মঙ্গলবারের ঘটনা থেকে কর্তৃপক্ষ উপযুক্ত পদক্ষেপ করবেন। কারণ অনেক আশা নিয়ে মানুষ নিউটাউনে বসবাস করতে আসছেন। শুট আউট এবং মঙ্গলবারের ঘটনা একটি শহরের জন্য অত্যন্ত খারাপ বিজ্ঞাপন।

নিউটাউনে এতদিনে যত মানুষের বসবাস করার কথা তার ৩০ শতাংশও এখনও এখানে থাকেন না। অনেকেই ফ্ল্যাট-জমি কিনে রেখেছেন। এই ধরণের ঘটনা বেড়ে চললে তারা আদৌ এই শহরে বাস করতে আসবেন কি না তা নিয়ে সংশয় থাকছে। আবার বলি, মঙ্গলবারের ঘটনা এবং আগের ঘটনাবলী এই শহরের জন্য অত্যন্ত খারাপ বিজ্ঞাপন এবং আমরা যারা এখানে পাকাপাকিভাবে বসবাস করতে শুরু করেছি, তাদের জন্য খুবই আতঙ্কের কারণ।

(লেখক নিউ টাউনের সুখবৃষ্টি আবাসনের বাসিন্দা)

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More