সিবিএসই দ্বাদশের পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি, সমস্ত রাজ্যকে মঙ্গলবারের মধ্যে প্রস্তাব পাঠাতে হবে

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সিবিএসই দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা নিয়ে সমস্ত রাজ্য সমঝোতায় আসতে পারল না। তাই তাদের আগামী ২৫ মে, মঙ্গলবারের মধ্যে নিজেদের প্রস্তাব পাঠানোর নির্দেশ দিলেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক।

আজ থমকে থাকা একের পর এক পরীক্ষার সম্ভাব্য সূচি ঠিক করতে কেন্দ্র উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডাকে। যেখানে সভাপতিত্ব করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক, শিশু ও নারীকল্যাণ মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি, কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর প্রমুখ। এ ছাড়া বিভিন্ন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীদের বৈঠকে হাজির থাকতে বলা হয়।

সূত্রের খবর, ভার্চুয়াল মিটিংয়ে একের পর এক প্রস্তাব উঠতে থাকে। কিন্তু সমস্ত পক্ষ কিছুতেই ঐক্যমত্যে আসে না। শেষে কেন্দ্র রাজ্যগুলিকে সিবিএসই দ্বাদশের বোর্ড পরীক্ষা নিয়ে দু’টি প্রস্তাব দেয়। এক, পেপারের সংখ্যা কমিয়ে পুরোনো পদ্ধতিতেই শুধুমাত্র প্রধান প্রধান বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হোক। দুই, পেপারের সংখ্যা একই থাক। শুধু পরীক্ষার সময়সীমা কমিয়ে দেড় ঘণ্টায় আনা হোক। এক্ষেত্রে পড়ুয়াদের সামনে এমসিকিউ এবং সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্ন রাখা হবে।

কিন্তু এতেও জটিলতা কাটেনি। কেন্দ্রের দেওয়া দুটি বিকল্প তখনই নাকচ করে দিল্লি ও মহারাষ্ট্র সরকার। দিল্লির শিক্ষামন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া জানান, তাঁরা অপশন ‘সি’ অর্থাৎ, পরীক্ষা বাতিলের পক্ষে। তাঁর দাবি, দ্বাদশের পড়ুয়াদের ফলাফল আগেকার পরীক্ষা কিংবা আভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ভিত্তিতে যাচাই করা উচিত। তবে যারা এই মূল্যায়নে সন্তুষ্ট হবে না, তাদের জন্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হোক। যদিও বাকি বেশ কিছু রাজ্যের প্রস্তাব, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে কিংবা যখন করোনার প্রকোপ কমবে, তখন অফলাইনেই এই পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে।

অন্যদিকে কলেজ স্তরের পরীক্ষা এবং জেইই মেইন, নিট ও ইউজিসি নেটের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিনেশনকে একমাত্র বিকল্প বলে উল্লেখ করেন সিসোদিয়া। তিনি বলেন, দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়া এবং স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-অধ্যাপকদের অবিলম্বে টিকা দেওয়া উচিত। তারপর পরীক্ষার চিন্তাভাবনা করুক কেন্দ্র।

যদিও শিক্ষামন্ত্রী পোখরিয়ালের দাবি, ‘আজকের বৈঠক যথেষ্ট ফলপ্রসূ হয়েছে। আমরা রাজ্যভিত্তিক একাধিক মতামত শুনেছি। আগামী ২৫ মে-র মধ্যে প্রতিটি রাজ্যকে বিস্তারিত আকারে প্রস্তাব লিখে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’ অতএব বলা যায়, মঙ্গলবারের মধ্যে কিংবা তার পরে সিবিএসই-র দ্বাদশের পড়ুয়াদের পরীক্ষার ভবিষ্যৎ নির্ধারিত হতে চলেছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.