ওমিক্রন চোখ রাঙাচ্ছে, আন্তর্জাতিক উড়ান নিয়ে ফের সংশয়! জানাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ত্রাসের নয় নাম ওমিক্রন। কোভিড সংক্রমণের এই নয়া ভ্যারিয়্যান্টকে ঘিরে ফের ঘন হয়েছে সংশয়, তুঙ্গে উঠেছে উদ্বেগের পারা। যখনই কোভিডের প্রকোপ কমতে শুরু করেছে, সারা দেশে তথা বিশ্বজুড়ে পরিস্থিতি একটু একটু করে স্বাভাবিক হওয়ার পথে এগোচ্ছে, তখনই ভাইরাসের এই নতুন প্রজাতির চোখরাঙানিতে ফের থমকে পরিস্থিতি। আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল নিয়েও ফের অস্বস্তির অবস্থা তৈরি হল দেশে।

এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, বিশ্বজুড়ে ওমিক্রন-পরিস্থিতি কী দাঁড়ায়, কী সিদ্ধান্ত হয় নানা দেশে, তার উপর নির্ভর করেই আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালুর ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ডেল্টা, ডেল্টা প্লাস, ল্যামডার পরে করোনার আরও এক নতুন প্রজাতি নাকি হানা দিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় এই প্রজাতির দেখা মিলেছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। ডেল্টার থেকেও সংক্রামক, ঝড়ের গতিতে জিনের গঠন বদলে ফেলতে পারে, সুপার-স্প্রেডার এই প্রজাতিকে ‘উদ্বেগজনক’ বা ‘ভ্যারিয়ান্ট অব কনসার্ন’ বলে ঘোষণা করেছে হু।

রাষ্ট্রপুঞ্জের একটি রিপোর্ট বলছে, নতুন এই প্রজাতির জিনোম সিকুয়েন্স বা জিনের গঠন বিন্যাস বের করে এর নাম দেওয়া হয়েছে বি.১.১৫২৯। ভাইরোলজিস্টরা বলছেন ওমিক্রন।

প্রসঙ্গত, গতকালই করোনা নিয়ে বিশেষ বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তিনি আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিয়ে বিধিনিষেধ শিথিলের বিষয়টি পর্যালোচনা করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরেই আসে ওমিক্রন-সতর্কতা। তাই ওমিক্রন নিয়ে রাজ্যগুলিকে সতর্ক করেছে কেন্দ্র। বলা হয়েছে, যে দেশগুলিতে ওমিক্রনের ঝুঁকি বেশি, সে দেশগুলি থেকে আসা যাত্রীদের উপর কড়া নজর রাখতে হবে।

যদি পরিস্থিতি ঠিক থাকত, তবে ১৫ ডিসেম্বর থেকে চালু হতো আন্তর্জাতিক বিমান। তেমনটাই কথা ছিল। কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়ে দিল, বর্তমান পরিস্থিতির নিরিখে আন্তর্জাতিক ভ্রমণের বিষয়টি ফের খতিয়ে দেখা হবে। ফলে ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল নিয়ে সংশয় দেখা দিল।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.