পুরুলিয়ায় কোভিড আক্রান্তের মৃত্যু, নেওয়া ছিল ভ্যাকসিনের দুটি ডোজও

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো : করোনা আক্রান্ত হয়ে পুরুলিয়ায় মৃত‍্যু হল এক বৃদ্ধের। হাতোয়াড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের কোভিড ইউনিটে শুক্রবার সকালেই তাঁর মৃত‍্যু হয়। ওই প্রবীণের কোভিডের দুটি টিকা নেওয়া ছিল বলে জানা গিয়েছে। তবে তাঁর কো-মর্বিডিটি ছিল। যাকে বলে অন্যান্য ক্রনিক অসুখ। করোনা সংক্রমণের পাশাপাশি তিনি অন্যান্য জটিল শারীরিক অসুখে ভুগছিলেন বলে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকরা। এদিন তাঁর মৃত্যুর পর পরিবারের সদস্যরা তাঁকে শনাক্ত করেন। এরপর স্বাস্থ‍্য দফতরের পক্ষ থেকে সমস্ত নিয়মবিধি মেনেই বৈদ্যুতিক চুল্লিতে দেহ সৎকার করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, বুধবার পুরুলিয়ার বলরামপুর থানা এলাকার বাসিন্দা ৬২ বছর বয়সের বৃদ্ধকে বেশ কিছু শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে পুরুলিয়া দেবেন মাহাতো সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে করোনা পরীক্ষার পর তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই তাঁকে হাতোয়াড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের কোভিড ইউনিটে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু শুক্রবার সকালেই তাঁর মৃত‍্যু হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই বৃদ্ধের অন্যান্য শারীরিক অসুস্থতাও ছিল। কিডনির সমস্যা ছিল। ছিল ডায়াবেটিসও। পরে হাসপাতালে পরীক্ষার পর কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে। বর্তমানে আরও ৪ জন করোনা আক্রান্ত হাতোয়াড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের কোভিড বিভাগে ভর্তি রয়েছেন।

হাসপাতালের চিকিৎসক নয়ন মুখোপাধ্যায় বলেন, মৃত ব্যক্তির কিডনির অসুখ এবং ডায়াবেটিস ছিল। তার সঙ্গে করোনা সংক্রমিত হয়েছিলেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কোভিড পজিটিভ আসছে। তবে মৃত্যু হচ্ছে সাধারণত আনুষঙ্গিক শারীরিক সমস্যার কারণে। এখনও হাসপাতালে আরও চারজন কোভিড আক্রান্ত রয়েছেন। হাসপাতালের পরিকাঠামো এখানে ভালই। সবাই হয়তো হাসপাতালে আসছেন না। সেফ হোমেও সেভাবে কোভিড আক্রান্তদের ভিড় নেই। সংক্রমণের হার বেশি হলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে হোম আইসোলেশনেই ঠিক হয়ে যাচ্ছেন। এ নিয়ে চিন্তার বিশেষ কিছু নেই। ঘাবড়ানোর কিছু নেই। তবে মানুষের বেপরোয়া ভাব কমাতে হবে। প্রশাসনের কোভিড বিধি মানতে হবে।

এদিকে, পুরুলিয়া পুরসভার প্রশাসক নব্যেন্দু মাহালি সবাইকে সতর্ক হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাড়ি থেকে বের হওয়ার কথা বলেন। তিনি বলেন, কোভিড মোকাবিলাই এখন আমাদের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। পুরুলিয়া সদরে এইমুহূর্তে ৩৮০ জনের শরীরে কোভিড পজিটিভ ধরা পড়েছে। এখনই সচেতন না হলে এটা উত্তরোত্তর বাড়বে। তাই সকলকে কোভিড বিধি মেনে চলার জন্য অনুরোধ রাখছি। সবাইকে সতর্কতার সঙ্গে সব ধরনের সুরক্ষাব্যবস্থা মেনে বাড়ি থেকে বেরানোর পরামর্শ দিচ্ছি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.