একেই বলে চাপ! সাইনাকে চিঠি লিখে ক্ষমা চাইলেন সিদ্ধার্থ

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা নেওয়ালকে ‘কুরুচিকর’ মন্তব্যের জন্য চাপ বাড়ছিল দক্ষিণী অভিনেতা সিদ্ধার্থের উপর। অবশেষে সাইনাকে চিঠি লিখে ক্ষমা চাইলেন তিনি।

মঙ্গলবার রাতে সোশ্যাল মাধ্যমেই সেই ক্ষমা-পত্র লেখেন দক্ষিণী অভিনেতা। সেখানে তিনি লেখেন, “মজা হিসেবে আমি যা লিখেছিলাম, তা অত্যন্ত খারাপ। এর জন্য আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাইছি।” সিদ্ধার্থ এও লেখেন, “আমি আপনার সঙ্গে একমত নই। আপনি যা লিখেছিলেন তার বিরোধী। কিন্তু তার পাল্টা আমি যে ধরনের শব্দ প্রয়োগ করেছি তা আমার উচিত হয়নি।”

কী লিখেছিলেন সাইনা?

পাঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আটকে পড়া নিয়ে সাইনা লেখেন, ‘‘যেখানে খোদ প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, সেখানে দেশবাসী কীভাবে নিরাপদ থাকবে? এমন কাপুরুষোচিত আচরণকে ধিক্কার জানাই।’’ সঙ্গে ভারত মোদির পাশে আছে হ্যাশট্যাগও দিয়েছিলেন সাইনা।

এই টুইটেই কমেন্ট করেন ‘রং দে বসন্তি’ খ্যাত অভিনেতা। কার্যত খোঁচা দিয়েই লেখেন, ‘‘বিশ্বের শাটল-কক চ্যাম্পিয়ন। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে ভারতকে রক্ষা করার মানুষ রয়েছে।” এরপরই যোগ করেন, “রিহানা, তোমার লজ্জা করা উচিত।’’ অনেকেই মনে করছেন, কৃষকদের আন্দোলনে বিদেশি গায়িকা রিহানা পর্যন্ত যেখানে পাশে ছিলেন, সেখানে তা উপেক্ষা করে সাইনা কী করে মোদীর পাশে দাঁড়িয়ে গেলেন, সেটি নিয়েই বিতর্ক। যদিও দক্ষিণী অভিনেতার প্রতিক্রিয়া নিয়েও সমানে প্রশ্ন উঠছে।

জাতীয় মহিলা কমিশন সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে এফআইআর করার পক্ষে সওয়াল করে। কমিশনের বক্তব্য, সিদ্ধার্থের বক্তব্য, নারীবিদ্বেষী। মহারাষ্ট্রের ডিজিপিকে চিঠি লিখে গোটা ঘটনার বিরুদ্ধে পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছে কমিশন। পাশাপাশি অভিনেতার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বিষয়টি খতিয়ে দেখার আরজিও করা হয়েছে চিঠিতে।

সাইনাও পালটা প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘‘এর মাধ্যমে সিদ্বার্থ কী বোঝাতে চেয়েছেন, জানি না। অভিনেতা হিসেবে সিদ্ধার্থকে ভালই লাগত। কিন্তু এটা ভাল লাগল না। ইচ্ছা করলে স্পষ্টভাবে নিজের বক্তব্য পেশ করতেই পারতেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন ভাষাই চলে।’’

নেট মাধ্যমেও সিদ্ধার্থের উপর চাপ বাড়ছিল। কার্যত গণদাবি উঠছিল ক্ষমা চাওয়ার। অবশেষে সেটাই করলেন তিনি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.