স্বাস্থ্যসাথী কার্ডকে বুড়ো আঙুল! সাত বেসরকারি হাসপাতালকে শো-কজ করল সরকার

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের নিয়ম না মেনে হাসপাতাল চলছে তার নিজের নিয়মে। বেসরকারি হাসপাতালে (Hospitals) এই কার্ডের কোনও গুরুত্বই দেওয়া হচ্ছে না। এমন অভিযোগের ভিত্তিতেই এবার পদক্ষেপ করল সরকার। সাতটি বেসরকারি হাসপাতালকে ধরানো হল শো-কজ নোটিস।

এদিন রাজ্য স্বাস্থ্য কমিশন শো-কজ করেছে সাতটি বেসরকারি হাসপাতালকে। অভিযোগ, স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও একাধিক রোগী ফিরিয়ে দিয়েছেন তাঁরা। এই সমস্ত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে আগামী ৩ নভেম্বরের জবাব দিতে হবে কেন তাঁরা এভাবে সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করেছে।

মঙ্গলবারই স্বাস্থ্যসাথী নিয়ে অ্যাডভাইজরি জারি করেছে স্বাস্থ্য দফতর। নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সমস্ত সরকারি হাসপাতালগুলিতে ভর্তির ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড লাগবেই। বেসরকারি হাসপাতালগুলিকেও এই নিয়ম মানতে হবে, না হলে লাইসেন্স বাতিল হতে পারে।

সোমবার উত্তরকন্যার প্রশাসনিক সভা থেকে হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছিলেন, শোনা গেছে অনেক বেসরকারি হাসপাতালই নাকি স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিচ্ছে না। সেইসব হাসপাতাল ও নার্সিংহোমগুলিকে চিহ্নিত করার জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। প্রয়োজনে লাইসেন্স বাতিল করার কথাও বলেন। প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে কড়াকড়ি করার কথা বলার পরদিনই নয়া অ্যাডভাইজারি জারি করেছে স্বাস্থ্য দফতর।

কী কী বলা হয়েছে অ্যাডভাইজারিতে? বিস্তারিত জানুন এই লিঙ্কে ক্লিক করে 

গত দেড় মাসে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডকে অবহেলাজনিত মোট ১০টি অভিযোগ জমা পড়েছে স্বাস্থ্য কমিশনে। তার মধ্যে সাতটি মামলার শুনানি হবে আগামী ৩ নভেম্বর।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.