‘শীতলকুচি করতে যাবেন না’, আউশগ্রামে পুলিশকে হুমকি তৃণমূল নেতার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভোট শুরু হতেই পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কিতে জড়ালেন তৃণমূল নেতা অরূপ মিদ্যা। ঘটনাকে ঘিরে অশান্তি ছড়িয়েছে এলাকায়। অন্যদিকে, সকাল থেকেই কেতুগ্রামে বোমাবাজি চলছে। বুথের বাইরে বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

পঞ্চম দফার ভোটেও বর্ধমান উত্তর ও দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। সূত্রের খবর, এদিন সকালে আউশগ্রামের প্রতাপপাড়া ডাঙ্গাপাড়া বুথের সামনে জমায়েত সরাতে গেলে পুলিশকে বাধা দেয় স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা। পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা শুরু হয়ে যায়। সে সময় সেখানে হাজির ছিলেন তৃণমূল নেতা অরূপ মিদ্যা। তিনি পুলিশকে রীতিমতো শাসানি দেন বলে অভিযোগ।

পুলিশ অফিসারকে এলাকা থেকে চলে যাওয়ার হুমকিও দিয়েছেন মিদ্যা। তাঁকে বলতে শোনা গেছে, “তিন পরে আমাদের সরকার আসবে। তখন দেখে নেব আপনি কত বড় পুলিশ অফিসার। এটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিচ্ছি। শীতলকুচি করার ইচ্ছে আছে? ভোট মানে আমাদের গ্রামে উৎসব।”

এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, প্রতাপপাড়ার ১৫৩ নম্বর বুথের বাইরে তৃণমূল কর্মীরা ভিড় করে ছিল। তাদের সরে যেতে বললেই ঝামেলা শুরু হয়ে যায়। এলাকায় এখনও উত্তেজনা রয়েছে বলে খবর।

এদিকে কেতুগ্রামে বুথের বাইরে বোমাবাজি হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হয়েছে, বুথে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলেও অভিযোগ।

ভোটের সকাল থেকে উত্তেজনা ছড়িয়েছে গলসিতেও। মনোহর সুজাপুর গ্রামের ২১৩ ও ২১৪ নম্বর বুথে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ভোটদানে বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। এক বিজেপি কর্মীকে মারধর করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। অভিযোগ তৃণমূলের দিকে, যদিও শাসক দলের তরফে এখনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। ঘটনাস্থলে রয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More