রেজাল্টে অসন্তুষ্ট? সিবিএসই দ্বাদশে পরীক্ষায় বসা যাবে

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সম্প্রতি সিবিএসই বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণীর ফল প্রকাশ হয়েছে। লিখিত পরীক্ষা না হওয়ায় অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ভিত্তিতেই এই রেজাল্ট তৈরি করা হয়েছে। গত দু’বছরের তুলনায় চলতি বছরে সিবিএসই পরীক্ষায় রেকর্ড স্কোর করেছে ছাত্রছাত্রীরা। তবু যে সমস্ত পড়ুয়া এই রেজাল্টে খুশি নয়, তাঁদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা ঘোষণা করল বোর্ড।

সোমবার সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশনের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, যারা বোর্ড প্রকাশিত রেজাল্টে সন্তুষ্ট নয় তারা আবার পরীক্ষায় বসতে পারবে। আবার পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। এছাড়া এবারের রেজাল্টে যে সমস্ত পড়ুয়া কোনও একটি বিষয়ে প্রয়োজনীয় নম্বর পায়নি, তারাও পরীক্ষা দিতে পারবে।

পলিসি অফ ট্যাবুলেশন অনুযায়ী এই কম্পার্টমেন্ট পরীক্ষায় যে কোনও একটি বিষয়ে নিজেদের প্রাপ্ত নম্বর বাড়ানোর সুযোগ পাবে।

এখন প্রশ্ন হল, কবে কীভাবে হবে এই পরীক্ষা?

বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ১৬ অগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ের মধ্যেই পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। যথাযথ রুটিন শিগগিরই প্রকাশ করা হবে।

ইংরেজি, ফিজিক্যাল এডুকেশন, বিজনেস স্টাডিজ, অ্যাকাউন্ট্যান্সি, রসায়ন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, বায়োলজি, ইকোনমিক্স, সোশিওলজি, ইনফরমেটিক্স প্র্যাক, কম্পিউটার সায়েন্স, অঙ্ক, হিন্দি ইলেকটিভ, হিন্দি কোর, ভূগোল, মনোবিজ্ঞান, গৃহ বিজ্ঞান, ফিজিক্স এবং ইতিহাসে এই পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

নম্বর দেওয়ার ক্ষেত্রে পড়ুয়াদের দশম ও একাদশ শ্রেণির ফলাফলকে বিচার করা হয়েছে। এ ছাড়া দ্বাদশের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়ন, প্র‍্যাক্টিক্যাল টেস্ট, টার্ম টেস্টের মতো প্রি-বোর্ড পরীক্ষার ফলাফলও গুরুত্ব পেয়েছে। বোর্ড জানিয়েছে, পরীক্ষার্থীদের দ্বাদশ শ্রেণির প্রি-বোর্ডে প্রাপ্ত নম্বরের ৪০ শতাংশকে গ্রহণ করা হয়েছে। পাশাপাশি একাদশের চূড়ান্ত পরীক্ষার ৩০ শতাংশ নম্বর এবং দশম শ্রেণির সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া তিনটি বিষয়ের প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ৩০ শতাংশ নম্বর দেওয়া হয়েছে। এই মূল্যায়ন পদ্ধতিতেই গত বছরের থেকে ১০ শতাংশ পাশের হার বেড়েছে বলে জানিয়েছে বোর্ড।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.