শ্রীলেখাকে তৃণমূলে নেমন্তন্ন, কী বললেন অভিমানী অভিনেত্রী

2

দ্য ওয়াল ব্যুরোঃ সুকুমার রায় লিখেছিলেন, ‘ছিল বেড়াল হয়ে গেল রুমাল!’
অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রর ক্ষেত্রে কতকটা তেমনই হয়েছে। ছিল কুকুর কাণ্ড হয়ে গেল সিপিএম-তৃণমূল।
গত কয়েকদিন ধরে উত্তর ২৪ পরগনার তরুণ বাম নেতা শশাঙ্ক ভাবসারের সঙ্গে শ্রীলেখা ও তাঁর পোষ্যপ্রেমী বন্ধুদলের আকচাআকচি দেখেছে সোশ্যাল মিডিয়া। ফেসবুকে তোপ দাগাদাগি, দত্তক নেওয়া কুকুর ছানার মৃত্যু নিয়ে শশাঙ্কর বাড়িতে ‘শ্রীলেখা বাহিনী’র চড়াও হওয়া, অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে একাংশের সিপিএম কর্মীসমর্থকদের লাগাতার আক্রমণ, সংকটে সিপিএমের মঞ্চে থাকা অভিনেত্রীর অভিমান, কান্না—সমস্ত মেলোড্রামা এখন অতীত। মাঝে আবার টক-ঝাল-নোনতার মতো সিপিএম নেতা তন্ময় ভট্টাচার্যের ‘ফিরছ কবে’ ‘দরদ’ নিয়েও সরগরম থেকেছে বাম জনতার ফেসবুক ওয়াল। এসবের মধ্যেই এবার তৃণমূলের নেমন্তন্ন পেলেন শ্রীলেখা মিত্র।

সিপিএম সমর্থক অভিনেত্রীর কোনও পোস্টে জনৈক মানস সরকার একটি কমেন্ট করেছেন। তার জবাবে আবার কিছু কথা লিখেছেন শ্রীলেখা। শনিবার বেশি রাতে সেই কমেন্ট ও রিপ্লাইয়ের স্ক্রিন শট পোস্ট করেছেন অভিমানী অভিনেত্রী। তার ক্যাপশনে শ্রীলেখা লিখেছেন, ‘টিএমসি সমর্থক বুঝল…যাক!’

কী আছে কমেন্টে?
জনৈক মানস সরকার লিখেছেন, সিপিএম আপনাকে কষ্ট দিয়েছে দিদি। আপনি তৃণমূলে আসুন। এবার নির্বাচনে সিপিএমের জন্য এতকিছু করলেন। তার বিনিময়ে আপনি কী পেয়েছেন? টাকা-পয়সা? কিছুই পাননি! তার বিনিময়ে পেলেন শুধু কষ্ট আর যন্ত্রণা। আপনি তৃণমূলে আসুন। এখানে চিরঞ্জিৎ, শতাব্দী, দেব, নুসরত, মিমি, জুন, কাঞ্চন-সহ আপনার একদা সহ শিল্পী, সতীর্থদের অনেকেই সম্মান ও স্বাচ্ছন্দের সঙ্গে রয়েছেন।”

এর জবাবে মানস সরকারকে মেনশন করে শ্রীলেখা লিখেছেন, “সিপিএমের কিছু অতি পাকা ছেলেমেয়ের জন্য পার্টির সমর্থন ছাড়ব না ভাই। ওটা নিয়ে বেঁচেছি, ওই বিশ্বাসেই বাকি জীবন কাটাব। কে কী বলল এত ভাবলে তো বাঁচতেই পারব না। বাট তুমি যে ফিল করেছ তার জন্য থ্যাঙ্ক ইউ!”

কমেন্টে শ্রীলেখা স্পষ্ট করে দিয়েছেন, তিনি সিপিএমের সংস্রব ত্যাগ করছেন না। বাকি জীবনটা লাল ঝান্ডাকে ভালবেসেই কাটাবেন। একই সঙ্গে যে বাহিনী শ্রীলেখাকে আক্রমণ করেছিল তাদের সিপিএমের পাকা ছেলেমেয়ে বলে কটাক্ষ করেছেন অভিনেত্রী। সেইসঙ্গে তৃণমূল কর্মীর নেমন্তন্ন পেয়ে, তাঁর অনুভূতিকে সম্মান জানিয়ে ধন্যবাদও জানিয়েছেন। যা দেখে এক সিপিএম নেতা রসিকতা করে বলেছেন, পার্টিটার ফেস বুথ থেকে ঘুরে ফেসবুকমুখী হয়ে গিয়েছে বলেই আজ এই অবস্থা!

You might also like
2 Comments
  1. […] আরও পড়ুনঃ শ্রীলেখাকে তৃণমূলে নেমন্তন… […]

  2. […] আরও পড়ুনঃ শ্রীলেখাকে তৃণমূলে নেমন্তন… […]

Leave A Reply

Your email address will not be published.