জিও ব্যাপক কমিয়েছে ডেটার দাম, আড়াই বছরেই পশ্চিমবঙ্গে মার্কেট লিডার আম্বানির সংস্থা

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে দেশে ফোর জি (Jio network) ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করে জিও রিলায়েন্স। তারপর থেকে গত পাঁচ বছরে দেশে ব্রডব্যান্ডের গ্রাহক বেড়েছে ৩১২ শতাংশ। পাঁচ বছর আগে দেশে ১৯ কোটি ২৩ লক্ষ মানুষ ব্রডব্যান্ড ব্যবহার করতেন। এখন ব্যবহার করেন ৭৯ কোটি ২৭ লক্ষ ৮০ হাজার মানুষ। পশ্চিমবঙ্গে ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করার আড়াই বছরের মধ্যে মার্কেট লিডার হয়ে ওঠে জিও। প্রত্যন্ত গ্রামেও পৌঁছে যায় তার নেটওয়ার্ক। ২০১৬ সালে জিও ইন্টারনেট পরিষেবা চালুর সময় রাজ্যে মাত্র ১ কোটি ৬০ লক্ষ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতেন। এখন রাজ্যে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা সাড়ে তিন কোটি। ইন্টারনেটের বাজারের ৫৭ শতাংশই জিও-র দখলে।

জিও ফাইবারের কভারেজের মধ্যে আছে পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি বড় শহর। জিও তার গ্রাহককে দিচ্ছে ৩০ দিনের ট্রায়াল অফার। এর আগে এমন সুযোগ কেউ দেয়নি। এর ফলে করোনা অতিমহামারীর সময় বহু পরিবার উপকৃত হয়েছে। জিও-র মাধ্যমে অনেক কর্মী বাড়িতে বসে অফিসের কাজ করেছেন। শিক্ষক ও ছাত্রদের মধ্যে যোগাযোগের মাধ্যম হয়ে উঠেছে জিও। অনেকে আত্মীয়-প্রিয়জনের সঙ্গেও জিও-র মাধ্যমে যোগাযোগ করছেন।

গ্রাহকদের সুবিধার জন্য সবসময় তৈরি আছেন জিও-র এক্সিকিউটিভ ও ফিল্ড ইঞ্জিনিয়াররা। তাঁরা ডোর স্টেপ ডেলিভারি ও কোয়ালিটি সার্ভিস দিয়ে থাকেন। জিও হল সবচেয়ে দ্রুতগতিতে বেড়ে চলা ফাইবার অপারেটর। ওই সংস্থা পরিকল্পনা করছে যাতে দ্রুত দেশের টিয়ার টু এবং অন্যান্য ছোট শহরে পরিষেবা চালু করা যায়।

পশ্চিমবঙ্গে গত দু’বছরে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়েও জিও-র উপযোগিতা প্রমাণিত হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আমফান ও ফণী যখন রাজ্যের উপকূলে আছড়ে পড়ে, তখনও জিও নেটওয়ার্কের বিশেষ ক্ষতি হয়নি। তার মাধ্যমেই দুর্গত এলাকার মানুষজনের সঙ্গে যোগাযোগ করা গিয়েছে। ফলে ত্রাণ পৌঁছে দিতেও সুবিধা হয়েছে। জিও-র প্রযুক্তিবিদরা চেষ্টা করছেন যাতে গ্রাহকরা সবসময় কানেক্টেড থাকতে পারেন।

জিও-র জন্য দেশ জুড়েই ডাটার দাম কমেছে। ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে এক জিবি ডেটার দাম ছিল ১৬০ টাকা। ২০২১ সালের মার্চে শেষ হওয়া আর্থিক বছরে সেই দাম কমে হয় ১০ টাকা ৭৭ পয়সা। অর্থাৎ জিও-র পরিষেবা চালুর পরে ইন্টারনেটে ডাটার দাম কমেছে ৯৩ শতাংশ। ওই সময়ের মধ্যে ডাটার ব্যবহার বেড়েছে ১৩০৩ শতাংশ। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকে দেশে মোট ৮৭৮.৬৩ এমবি ডাটা ব্যবহৃত হত। ২০২১ সালের মার্চে শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকে ডাটার ব্যবহার বেড়ে হয়েছে ১২.৩৩ জিবি।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More