হাথরস কাণ্ডের বছর পার, আজও ভয়ে কুঁকড়ে আছে সেই দলিত পরিবার

দ্য ওয়াল ব্যুরোঃ দেখতে দেখতে কেটে গেছে একটা গোটা বছর। উত্তরপ্রদেশের হাথরস (Hathras) গ্রাম এখনও রয়ে গেছে সেই তিমিরেই। হাথরসে গণধর্ষিতা (Gang rape) দলিত তরুণীর আত্মা এখনও সুবিচার পায়নি। এখনও বিচারের আশায় দিন গুণে চলেছে হাথরসের সেই দলিত পরিবার।

কুমিরটা ছটফট করছে রেল লাইনে, থমকে গেল রাজধানী

ঘরের মেয়ের মৃত্যুর সুবিচার পাওয়া তো দূরের কথা, এখনও ভয়ে কুঁকড়ে থাকতে হয় হাথরসের সেই পরিবারকে। তাঁদের সঙ্গে গ্রামের কেউ কোনও কথাই বলে না। দিনরাত ২৪ ঘণ্টা সিসিটিভি ক্যামেরার নজরাধীন হয়ে থাকেন তাঁরা। বাড়ির বাইরে সারক্ষণ পাহারা দেয় চারজন সিআরপিএফ জওয়ান।

এত কিছু মাথায় নিয়েও বিচারের আশা ছাড়েনি পরিবার। তাঁদের পণ, সুবিচার যতদিন না পাওয়া যাচ্ছে ততদিন পর্যন্ত মৃতা কন্যার শেষ কৃত্য সম্পন্ন করবেন না তাঁরা। এখনও মেয়ের চিতাভস্ম ঘরের এক কোণে এক পাত্রে রাখা রয়েছে। একইভাবে রয়ে গেছে নির্যাতিতার ব্যবহৃত সেলাই মেশিন।

২০২০-র ১৪ সেপ্টেম্বর হাথরসের দলিত তরুণীকে ধর্ষণ করে খুন করার ঘটনা ঘটে। অভিযোগের আঙুল উঠেছিল চার তথাকথিত উচ্চবর্ণের ব্যক্তির দিকে। এই নিয়ে তোলপাড় হয় গোটা দেশ। এমনকি অভিযোগ উঠেছিল, দলিত ওই পরিবারের মুখ বন্ধ করতে তাদের শাসিয়েছে পুলিশ। ওই মৃত তরুণীর দেহ মাঝরাতে গোপনে সৎকারও করে ফেলা হয় জোর করে। পুরো বিষয় নিয়ে রাজনৈতিক তুরজা জারি ছিল বহুদিন।

কিন্তু দেখতে দেখতে ভয়াবহ সেই ঘটনার এক বছর কেটে গেছে। এখনও বিচার পায়নি পরিবার। উল্টে ভয়, অবহেলা আর কড়া নজরদারি এখনও তাদের নিত্যসঙ্গী।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More