তালিবানের চোখে চোখ রেখে অধিকার বুঝে নিতে চান আফগানিস্তানের এই মহিলা ব্যবসায়ী

2

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাবুলের মসনদে বসার পর তালিবান (Taliban) বলেছিল সকলের অধিকার তারা সুরক্ষিত করবে। শরিয়া আইন অনুসারে দেশ চালাবে তারা। মেয়েরাও সেই আইন অনুযায়ী স্বাধীনতা ভোগ করবে। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে বারবার দেখা গেছে তালিবানি শাসনে মেয়েদের উপর নানা জুলুম চলছে। কেউ তা মুখ বুজে মেনে নিচ্ছেন, কেউ উঠছেন গর্জে। আফগানিস্তানের (Afghanistan) শাফিকে আত্তাই তেমনই একজন।

দেশ জুড়ে কোভিডবিধি আরও এক মাস বাড়ালো কেন্দ্র, উৎসবের মরশুমে বাড়তি সতর্কতা

শাফিকে আত্তাই একজন সবনির্ভর ব্যবসায়ী। তিনি স্যাফরনের ব্যবসা করেন। হেরাতে ২০০৭ সাল থেকে তিনি স্যাফরনের কোম্পানি শুরু করেছেন। কিন্তু সম্প্রতি তালিবানি শাসনে মেয়েদের বাড়ির বাইরে বেরনো, পোশাকবিধি প্রভৃতির উপর জুলুম করা হচ্ছে। আর তা মুখ বুজে মেনে নিতে রাজি নন শাফিকে আত্তাই। তিনি নিজের অধিকারের জন্য লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বলেছেন, আমরা আমাদের মুখ খুলব, আমাদের কথা যাতে ওদের কান অবধি পৌঁছয়, সেই ব্যবস্থা করব। যাই হয়ে যাক না কেন, আমরা ঘরে বসে থাকব না। কারণ আজ যেখানে পৌঁছেছি তার জন্য আমাদের অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে।

শাফিকে আত্তাইয়ের কোম্পানিতে হাজারের বেশি মহিলা কাজ করেন। তাঁদের সকলের জীবিকা নির্ভর করে আছে এই ব্যবসার উপরেই। তাই আত্তাই কিছুতেই হাল ছাড়তে রাজি নন। তাঁর মতো তাঁর কর্মচারীরাও এগিয়ে আসতে চান, মুখ খুলতে চান, তালিবানি শাসনের মাঝে মাথা তুলে দাঁড়াতে চান মহিলা হিসেবে।

তালিবান দেশ দখল করার পর আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন অনেকে। অন্যান্য দেশে ঠাঁই নিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে অনেক মহিলাই এমন আছেন যাঁরা চাকুরিরত ছিলেন, তালিবানের ভয়ে পালিয়ে গিয়েছেন মাতৃভূমি ছেড়ে। কিন্তু আত্তাইরা তা করতে চান না। দেশে থেকেই নিজেদের অধিকার বুঝে নিতে চান তালিবানের চোখে চোখ রেখে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
2 Comments
  1. […] […]

  2. […] […]

Leave A Reply

Your email address will not be published.