তিমির মুখে হাত ঢুকিয়ে দিলেন মহিলা! দেখুন সেই রোমহর্ষক ভিডিও

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আক্রমণ নেই, হিংস্রতা নেই, আছে কেবল ভালবাসা। এক মনুষ্যেতর প্রাণীর সঙ্গে মানুষের ভালবাসা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে (Video) সেই অকৃত্রিম ভালবাসার ছবি দেখা গেছে আবার।

নিষিদ্ধ, তবু টু-ফিঙ্গার টেস্ট হয়েছে! দাবি ভারতীয় মহিলা বায়ুসেনার ধর্ষিতা অফিসারের

কী আছে সেই ভিডিওতে?

দেখা গেছে, এক তিমির (Beluga Whale) মুখের ভিতর অবলীলায় হাত ঢুকিয়ে দিচ্ছেন চিড়িয়াখানার মালকিন। জিভের মধ্যে বাড়ি মেরে মেরে দেখছেন, এমনকি হাত দিয়ে ধরে ঘুরিয়ে দিচ্ছেন তিমির মুখ। উপরে মাড়িতেও বার দুয়েক চাপড় মেরে দেখছেন। আর সবটা দেখা হয়ে গেলে জন্তুটি যখন আবারও ঘুরে তাকিয়েছে তাঁর দিকে, তখন অবলীলায় শিশুর মতো সরল সেই মুখে ছুঁড়ে দিচ্ছেন খাবার। খাবার অর্থাৎ দুটি গোটা গোটা মাছ।

দেখুন সেই ভিডিও এই লিঙ্কে ক্লিক করে

মাত্র কয়েক সেকেন্ডের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় সাড়া ফেলে দিয়েছে। সকলেই বারবার করে দেখছেন এই ভিডিও। শেয়ারও করছেন প্রচুর। কিন্তু কেন চিড়িয়াখানার ওই আপাত ‘বিপজ্জনক’ জন্তুর মুখের ভিতর ওভাবে হাত ঢোকালেন মালকিন? জানা গেছে, তিমির মুখের অবস্থা কেমন, সেখানে কোনও সমস্যা দেখা দিয়েছে কিনা, শারীরিক অবস্থা ঠিক আছে কিনা তাই রুটিন মাফিক দেখে নিচ্ছিলেন ওই মহিলা। অর্থাৎ স্বাস্থ্য চেকআপ চলছিল। এমনটা প্রায়ই চলে। তাই জন্তুটিও বোঝে এখানে নিখাদ ভালবাসা আছে, হিংস্রতার কোনও স্থান নেই।

সমুদ্রের গভীরে চড়ে বেড়ানো বড় তিমি এ নয়। এর নাম বেলুগা তিমি। চিড়িয়াখানার ছোট জলাশয়ে এরা দিব্যি এঁটে যায়। তবে মানুষের সঙ্গে খুব যে সদ্ভাব রয়েছে, তেমনটাও শোনা যায় না। কিন্তু ভালবাসা দিয়ে সকলকেই পোষ মানানো যায়, ভাইরাল এই ভিডিও তারই প্রমাণ।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.