মাঠে ফিরেই ফের লাল কার্ড দেখলেন নেইমার, এই নিয়ে একই মরসুমে তিনবার!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নেইমার ও বিতর্ক, দুটি কথা যেন সমার্থক। নেইমারের সঙ্গে আরও একটি শব্দ ভাল যায়, সেটি চোট। এত ইনজুরি প্রোন তারকা, সেরে উঠতে না উঠতেই চোট পান।

এবার যদিও চোট নয়, ম্যাচে দু’বার হলুদ কার্ড দেখে শেষে লাল কার্ড দেখে মাঠের বাইরে বেরিয়ে গিয়েছেন। নেইমার খেলতে নেমেছিলেন ফ্রেব্রুয়ারি পরে, কোচ তাঁকে প্রথম একাদশেই রেখেছিলেন। কিন্তু তিনি কাজের কাজ কিছু করে উঠতে পারেননি।

নেইমার থাকা মানে পিএসজি-র বড় ভরসা, সেটাই সকলে মনে করেন। যতই কিলিয়ান এমবাপে থাকুন না কেন, নেইমার যদি খেলে দেন, বাকিদের খেলতে হয় না। চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরে এসেছিলেন। কিন্তু তিনি ছন্দে না থাকলে দল ডোবে, তাই হয়েছে। ফ্রেঞ্চ লিগে লিলের কাছে ০-১ গোলে হেরে বেকায়দায় পড়ল প্যারিস স্যঁ জ্যঁ।

মাত্র ৪ পয়েন্টের ব্যবধান লিগের শীর্ষ চার দলের মধ্যে। ফ্রেঞ্চ লিগে আট ম্যাচ বাকি থাকতে এমন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই চলছে। শীর্ষ দুই দল পিএসজি ও লিলের পয়েন্ট ৬৩। এর মধ্যে মোনাকো জয় পেয়ে তিনে (৬২ পয়েন্ট) উঠে এসেছে।

এমন অবস্থায় শীর্ষ স্থানের জন্য লড়াই করতেই নেমেছিল দুই দল। যার ফল ম্যাচের মাত্র ৪ মিনিটেই প্রথম হলুদ কার্ড দেখাতে বাধ্য হয়েছেন রেফারি। ১৯ মিনিটের মধ্যেই আরও দুজন কার্ড দেখেন। ২০ মিনিটেই ধাক্কা খেল পিএসজি। কানাডিয়ান স্ট্রাইকার জোনাথন ডেভিড একদম গোলমুখে বল পেয়ে দলকে এগিয়ে দেন। ম্যাচে ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে পিএসজি। ওদিকে নেইমারকে বিরক্ত করার পরিকল্পনা নিয়ে নামেন লিলের খেলোয়াড়েরা।

নেইমারদের ধৈর্য্য থাকেনি বিপক্ষের কৌশলে। দুজনই হলুদ কার্ড দেখেছেন। আবার প্রাণপণ চেষ্টা করেও গোলের দেখাও পাননি। ম্যাচের শেষ সময়ে নেইমারকে বারবার ফাউল করছিলেন তিয়াগো জালো। আগেই এক হলুদ কার্ড দেখা নেইমার মাথা ঠান্ডা করে রাখতে পারেননি। ক্ষোভ প্রকাশ করে ধাক্কা মেরে দেন বিপক্ষ ফুটবলারকে।

প্রতিপক্ষ যা চাইছিল, সেই ফাঁদেই পা দেন নেইমার। রেফারি কার্ড দেখালে তাঁর দিকে তেড়েও যান। সতীর্থরা তাঁকে ঠান্ডা করে মাঠের বাইরে পাঠান।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More