শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৬

এসি ঘরে বসে নাগরিকত্ব বিল নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে বিরোধীরা, গুয়াহাটিতে ভাষণ মোদীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : দু’দিনের সফরে উত্তর-পূর্ব ভারতের তিন রাজ্যে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই সময় নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন তীব্র করেছে বিভিন্ন সংগঠন। তাদের অভিযোগ, নাগরিকত্ব বিলে অনুপ্রবেশে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে। সেই আশঙ্কা দূর করার জন্য শনিবার মোদী গুয়াহাটিতে বললেন, যারা দিল্লিতে এয়ার কন্ডিশনড ঘরে বসে থাকে আর সংসদে আমাদের সঙ্গে লড়াই করে, তারাই নাগরিকত্ব বিল নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে। অসমে বা সারা দেশে কোথাও অনুপ্রবেশকারীদের স্থান নেই। আমরা অসমের মানুষের স্বার্থ রক্ষার জন্য দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

একইসঙ্গে তিনি বলেন, অসম চুক্তির ছয় নম্বর ধারা গত ৩৫ বছরেও কার্যকর করা হয়নি। আমার সরকার ওই ধারা কার্যকর করবে। ছয় নম্বর ধারায় বলা আছে, অসমের মানুষের সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও ভাষাগত ঐতিহ্য বজায় রাখার জন্য সাংবিধানিক, আইনি ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কংগ্রেসকে পরোক্ষে সমালোচনা করে তিনি বলেন, যারা আমাদের বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলছে, তাদের কাছে আমি জানতে চাই, তিন দশক ধরে তারা কী করছিল। তারা তো ওইসময় ক্ষমতায় ছিল। অসম যেন ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতির শিকার না হয়। তিনি আশ্বাস দেন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক একটি উচ্চপর্যায়ের কমিটি গড়বে। সেই কমিটি অসম চুক্তির ছয় নম্বর ধারা কার্যকর করবে।

নাগরিকত্ব বিল ইতিমধ্যে পাশ হয়ে গিয়েছে লোকসভায়। শীঘ্রই ওই বিল পেশ হবে রাজ্যসভায়। বিরোধীদের অভিযোগ, ওই বিলে অনুপ্রবেশকারীদের মধ্যে ধর্মীয় ভিত্তিতে বিভাজন করা হয়েছে। বিলে বলা হয়েছে, পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ থেকে আসা অমুসলিম শরণার্থীদের দ্রুত নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। উত্তর পুর্ব ভারতের বিভিন্ন সংগঠনের ধারণা, এর ফলে ওই সব দেশ থেকে অনেকে ভারতে ঢুকে পড়তে চেষ্টা করবে। বিজেপির জোট শরিকদের অনেকেও ওই বিলের বিরোধিতা করেছে।

গত শুক্রবার মোদী গুয়াহাটিতে পা রাখার পরেই মশাল মিছিল বার করে বিজেপির একসময়কার শরিক অসম গণ পরিষদ। মোদীর কনভয় যখন রাজভবনের দিকে যাচ্ছে, তখন কালো পতাকা দেখায় ছাত্র সংগঠন আসু। গুয়াহাটির উজান বাজারে আসুর কার্যালয়ের সামনে ব্যারিকেড করেছে পুলিশ। আসু দু’দিন ধরে অসমের নানা প্রান্তে নাগরিকত্ব বিলের কপি পুড়িয়েছে। কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি নামে এক সংগঠন ঘোষণা করেছিল, মোদী যখন গুয়াহাটিতে ভাষণ দেবেন, তখন কালো পতাকা দেখাবে। মোদীর ভাষণের সময় ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে গুয়াহাটিতে।

Shares

Comments are closed.