নার্স গাফিলতিতে মাথায় আঘাত, মৃত্যু সদ্যোজাতের ! উত্তেজনা ভাটপাড়া হাসপাতালে

দ্য ওয়াল ব্যুরো, ভাটপাড়া: কর্তব্যরত নার্সের গাফিলতিতে প্রসব করানোর সময় সদ্যোজাতের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালের বিরুদ্ধে। এই ঘটনা চাউর হতেই সকালে উত্তেজনা ছড়ায় হাসপাতাল চত্বরে। রোগীর পরিবারের সঙ্গে নার্সদের বচসাও বাঁধে। পরে জগদ্দল থানার পুলিশকে ছুটে আসতে হয়ে ছিল। বিশাল পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে হাসপাতালে। এমনকি পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে স্থানীয় বিজেপির বিধায়ক পবন সিংও ছুটে আসেন হাসপাতালে।

পুলিশ সূত্রে খবর, কাঁকিনাড়া মানিকপীর এলাকা এক প্রসূতি মঙ্গলবার সন্ধ্যে নাগাদ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ছিলেন। এরপর রাত এগারোটার সময় তাঁর প্রসব যন্ত্রণা ওঠে। ভোর ৪টে নাগাদ তিনি এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন। সেই সময় কর্তব্যে থাকা নার্সের গাফিলতিতে ওই সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবারে লোকেরা অভিযোগ করেছেন। এই নিয়ে জগদ্দল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তবে প্রসূতির পরিবারের সঙ্গে হাসপাতালের নার্সদের বচসা হয়েছে। পরিস্থিতি ঘোরালো যাতে না হয়ে পড়ে তাই পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে হাসপাতালে।

এদিকে প্রসূতির পরিবারের অভিযোগ, ”মঙ্গলবার সন্ধ্যে ৭টার সময় প্রসূতিকে হাসপাতালে ভর্তি করতে এসে তাঁদেরকে পয়সা দিয়ে আয়া রাখার জন্য বাধ্য করা হয়। তা না হলে ভর্তি নিচ্ছিলনা হাসপাতাল। পরে রাত এগারোটা নাগাদ প্রসূতির যন্ত্রণা ওঠে। সেই সময় নার্স বা আয়া কেউ কাছে ছিলেন না। তাই বাধ্য হয়ে প্রসূতির সঙ্গে থাকা পরিবারের সদস্যদের তাঁদের ডাক পাঠাতে হয়েছিল। এরপর কর্তব্যরত নার্স এসে প্রসূতির হাত ধরে টানতে টানতে লেবার রুমে নিয়ে যান। ভোর চারটে পর্যন্ত সেখানেই যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন প্রসূতি। এরপর গর্ভস্থ সন্তানকে প্রসব করানোর সময়ও মাথা ধরে টানতে থাকেন নার্স। তাতে সদ্যোজাতে নরম মাথাতে আঘাত লাগে। তাতেই মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের।”

এই ঘটনায় ভাটপাড়া বিধায়ক পবন সিং বলেন, দীর্ঘ দিন ধরেই এই হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছে। এখানে কোনও ট্রেন্ড নার্স নেই। ফলে অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে যায়। এছাড়াও চিকিৎসকের অভাব রয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকও হয়েছে। তাঁদের অসুবিধাগুলি লিখিতভাবে দিতে বলে ছিলাম। কিন্তু তাঁরা দেননি। হয়ত ওপর তোলা থেকে বিষয়টিকে চেপে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। কিন্তু এই ভাবেই অবহেলায় চলতে পারেনা একটি হাসপাতাল। এখানে গরীবরা চিকিৎসা করাতে আসেন। শুনেছি আয়া,নার্সদের টাকা না দিলে তাঁরা চিকিৎসা বা নূন্যতম কর্তব্যগুলি করেননা। এমন সমস্ত বিষয়গুলিতে নজর না দিলে ভবিষ্যতেও আজকের মতো ঘটনা ঘটতে থাকবে।

 

 

Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More