দায়টা ছেলেদেরই! ইমরানের ধর্ষণ মন্তব্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া প্রাক্তন স্ত্রী জেমাইমার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ধর্ষণ বেড়ে যাওয়া নিয়ে টিভি সাক্ষাত্কারে বিতর্কিত মন্তব্য করে প্রবল অস্বস্তিতে ইমরান খান। পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ধর্ষণের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে মেয়েদের পোশাক, সাজগোজের ধরনের যোগসূত্র টেনে এতটাই ক্ষোভের সঞ্চার করেছেন যে, প্রাক্তন স্ত্রী জেমাইমা গোল্ডস্মিথও রেয়াত করেননি তাঁকে। ইমরান লাইভ ইন্টারভিউয়ে প্রথমে বলেন, যে সমাজে অশালীনতা বাড়তে থাকে, তার পরিণতি যে কী হয়, ধর্ষণের সংখ্যাবৃদ্ধি সেদিকেই ইঙ্গিত করে। সমাজে ধর্ষণ দ্রুত বেড়েছে, স্বীকার করে এজন্য মহিলাদের শরীর ঢেকেঢুকে রাখার পরামর্শ দেন যাতে তাতে পুরুষ প্ররোচিত না হয়! পর্দাপ্রথার সমর্থনে ওকালতি করে বলেন, গোটা পর্দা প্রথার ধারণাটাই হল প্ররোচনা এড়ানো। সকলের তো প্ররোচনা এড়ানোর মনের জোর থাকে না। তিনি মেয়েদের সাদামাঠা পোশাক পরা বা পুরুষ, মহিলা লিঙ্গ প্রভেদের উল্লেখ করেন।
এর তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে। ব্রিটিশ চলচ্চিত্র নির্মাতা তথা তাঁর বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া প্রথম স্ত্রী জেমাইমা ট্যুইটারে ইমরানের মন্তব্য সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট শেয়ার করে লেখেন, বিশ্বাসী পুরুষতে বলো, তারা যাতে নিজেদের দৃষ্টিকে সংযত করে, গোপনাঙ্গ ঢেকে রাখে। কোরান ২৪ঃ৩১। দায়টা পুরুষেরই। জেমাইমার ট্যুইটটি কয়েক হাজার লোক শেয়ার, লাইক করেছেন, যাঁরা তাঁর মতোই ইমরানের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ। যদিও একইসঙ্গে জেমাইমার সংযোজন, আশা করব, ওকে ভুল ভাবে উদ্ধৃত করা হয়েছে বা কথার ভুল অনুবাদ করা হয়েছে। আমি যে ইমরানকে চিনতাম, সে তো বলত, মেয়েদের নয়, ছেলেদের চোখ ঢেকে রাখা উচিত।
ইমরানের বক্তব্য জানাজানি হতেই পাকিস্তানের মানবাধিকার রক্ষা আন্দোলনের লোকজন তাঁর বিরুদ্ধে ‘চরম অজ্ঞতা’র অভিযোগ তোলেন। কয়েকশ লোক অনলাইনে স্বাক্ষরিত বিবৃতি ছড়িয়ে পাক প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য ‘তথ্যের দিক থেকে ভ্রান্ত, অসংবেদনশীল, বিপজ্জনক’ বলে দাবি করেন। বলেন, দায়টা পুরোপুরি ধর্ষক ও যে সিস্টেম তাকে শক্তি দেয় তার, যার মধ্যে এমন ধরনের মন্তব্যে পুষ্ট সংস্কৃতিও আছে। পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনও ইমরানের মন্তব্যে বিস্মিত বলে জানায়।
টিভিকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে পাক প্রধানমন্ত্রী ভারতের উল্লেখ করেও বলেন, বলিউড যবে থেকে হলিউডের নকল করা শুরু করল, একই পরিস্থিতি তৈরি হল সেখানেও। দিল্লি ধর্ষণ রাজধানী হিসাবে পরিচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More