কোম্পানির নামে ‘অক্সিজেন’ রয়েছে, তাতেই শেয়ারের দাম লাফিয়ে বেড়ে গেল স্টক মার্কেটে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় নাজেহাল গোটা দেশ। অতিমারীর প্রভাব অনিবার্য ভাবে পড়েছে শেয়ার মার্কেটেও। কিন্তু এর মাঝেই অন্য ছবি দেখা যাচ্ছে অক্সিজেন বাজারে।

দেখা গেছে, যেসমস্ত কোম্পানি অক্সিজেন নিয়ে কারবার করে, গ্যাস উৎপন্ন করে, শেয়ার মার্কেটে হু হু করে বেড়ে চলেছে তাদের দর। শুধু তাই নয়, এমনকি যেসব কোম্পানির নামে কেবলমাত্র ‘অক্সিজেন’ কথাটি রয়েছে, গ্যাসের সঙ্গে তাদের তেমন কোনও সম্পর্ক নেই, দর বেড়েছে তাদেরও। মন্দার শেয়ার বাজারে অক্সিজেনের এই উলটপুরাণ যে শোরগোল ফেলেছে, তা বলাই বাহুল্য।

বম্বে অক্সিজেন, ন্যাশানাল অক্সিজেন লিমিটেড, ভগবতী অক্সিজেন লিমিটেডের মতো কোম্পানিগুলি সবকটিই ছোটো ছোটো সংস্থা। এমনকি বড়সড় স্টক ইনডেক্সে নামও নেই তাদের। কিন্তু চলতি মাসে এই ছোটো কোম্পানিরাই বাজিমাত করেছে শেয়ার মার্কেটে। শুধুমাত্র এপ্রিলেই প্রায় ৪৭ শতাংশ বা তার বেশি দর বেড়েছে এদের। এর ঠিক বিপরীতে যদি সার্বিকভাবে শেয়ার মার্কেটের দিকে চোখ রাখা যায়, তবে দেখা যাচ্ছে সবমিলিয়ে ২ শতাংশ শেয়ার দর পড়েছে।

করোনা আবহে দেশ জুড়ে অক্সিজেনের চাহিদা এখন আকাশছোঁয়া। সংক্রমিত রোগীদের শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা মেটাতে এই গ্যাস অপরিহার্য। হাসপাতাল গুলিতে অক্সিজেনের জোগান বাড়ানোর জন্য তাই উৎপাদন বৃদ্ধির দিকে নজর দেওয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অক্সিজেন সিলিন্ডারের দামও বেড়ে গেছে নজিরবিহীন ভাবে। কোথাও কোথাও তা আগের চেয়ে দ্বিগুণ হয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগটা সহজেই অনুমান করা যায়।

ন্যাশানাল অক্সিজেন আর ভগবতী অক্সিজেন শিল্পাঞ্চলে বিভিন্ন গ্যাসের সঙ্গে সঙ্গে অক্সিজেনও উৎপাদন করে থাকে। কিন্তু বম্বে অক্সিজেন ২০১৯ সালেই গ্যাস উৎপাদনের কারবার বন্ধ করে দিয়েছে। সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী এই কোম্পানি এখন নন-ব্যাঙ্ক লেন্ডার হিসেবে কাজ করে। আগে এর নাম ছিল ‘বম্বে অক্সিজেন করপোরেশন লিমিটেড’। বর্তমানে নাম বদলে গিয়ে হয়েছে ‘বম্বে অক্সিজেন ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড’। এপ্রিল মাসের শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত এই কোম্পানির শেয়ার দর প্রায় ১১২ শতাংশ বেড়ে গেছে। যদিও মঙ্গলবার ৫ শতাংশ শেয়ার পড়েছে বম্বে অক্সিজেনের।

কোম্পানির কেউ কেউ দাবি করেছেন, এখনও এখানে অক্সিজেন ও অন্যান্য গ্যাস তৈরি করা হয়। কিন্তু তার সপক্ষে কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এ প্রসঙ্গে মুম্বইয়ের কোটাক সিকিউরিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট রুসমিক ওজা বলেছেন, “যখন করোনা সংক্রমণ আবার কমতে শুরু করবে, আর অক্সিজেনের জোগান বাড়বে, তখন পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হয়ে যাবে।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More