নিউ ইয়র্কে আইসিসের হয়ে গণহত্যা ঘটানোর ছক, ধৃত পাক আমেরিকান তরুণ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ধারালো ছুরি কীভাবে ব্যবহার করতে হয়? কোন কোন জায়গায় বোমা ফাটালে সবচেয়ে বেশি মানুষ মরবে? এসবই লেখা ছিল জঙ্গি সংগঠন আইসিসের ট্রেনিং ম্যানুয়ালে। সেই ম্যানুয়াল জঙ্গিরা পাঠিয়েছিল ১৯ বছরের এক পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ছেলের কাছে। তার নাম আওয়াস চৌধুরি। সে নিউ ইয়র্কে বড় ধরনের জঙ্গি হানা ঘটাতে চেয়েছিল। বৃহস্পতিবার সে পুলিশের ফাঁদে পড়ে। শুক্রবার তাকে ফেডারাল কোর্টে পেশ করা হয়।

অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাটর্নি জেনারেল জন সি ডেমারস কোর্টে বলেন, আওয়াস চৌধুরি নিউ ইয়র্কে বড় ধরনের রক্তপাত ঘটানোর ছক কষেছিল। তার ধারণা হয়েছিল, সেই গণহত্যা দেখে আরও অনেকে আইএসে যোগ দিতে আগ্রহী হবে। আমেরিকায় জঙ্গি হামলা চালাবে। বিচারক জন ওরেনস্টেইন আওয়াসকে জামিন দেননি।

পুলিশ কোর্টে যে নথিপত্র পেশ করেছে, তাতে জানা যায়, আওয়াস ঠিক করেছিল, ওয়ার্ল্ড ফেয়ার মারিনাতে হামলা চালাবে। বোমা ফাটানোর জন্য সে পেডেস্ট্রিয়ান ওভারপাসের কয়েকটি জায়গাও নির্দিষ্ট করে। কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাতেও বোমা ছুঁড়বে বলে স্থির করে।

পুলিশের কয়েকজন গোয়েন্দা নিজেদের পরিচয় গোপন রেখে আওয়াসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁরা জানতে পারেন, আওয়াস অস্ত্রশস্ত্র কিনতে চাইছে। হামলার পরে সে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিতে চায়। সেজন্য ভালো ক্যামেরারও খোঁজ করছে।

গোয়েন্দাদের বিশ্বাস করে আওয়াস আইএসের ম্যানুয়ালের স্ক্রিনশট তুলে তাঁদের কাছে পাঠিয়ে দেয়।

ক্যামেরার জন্য সে এক অনলাইন ভেন্ডারকে অর্ডার দিয়েছিল। বৃহস্পতিবার সে ভেন্ডারের থেকে ক্যামেরাটি সংগ্রহ করতে যাবে, এমন সময় ধরা পড়ে।

পুলিশ জানিয়েছে, সে দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা করেছিল। যে সব জায়গায় হামলা চালাবে বলে ভেবেছিল, সেখানে বেশ কয়েকবার গিয়ে দেখেও এসেছিল।

এর আগেও পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একাধিক ব্যক্তি জঙ্গিদের সঙ্গে যোগসাজশ থাকার অভিযোগে আমেরিকায় ধরা পড়ে। ২০১০ সালে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত আমেরিকান ফয়জল শাহজাদ পাকিস্তানি তালিবানের হয়ে টাইমস স্কোয়ারে গাড়ি বোমা রাখে। বিস্ফোরণের আগেই বোমাটি উদ্ধার করা হয়।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More