২ ডিসেম্বর থেকে ২৭ জোড়া দূরপাল্লার ট্রেন চলবে বাংলায়, টুইট রেলমন্ত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রেল পরিস্থিতিকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক করার উদ্যোগ অনেক দিন ধরেই নিয়েছে রেল। সব রকম বিধিনিষেধ মেনে চলছে বেশ কিছু রুটের ট্রেন। কয়েক সপ্তাহ আগে চালু হয়েছে বহু রাজ্যের আংশিক লোকাল ট্রেন পরিষেবাও। এবার পশ্চিমবঙ্গ থেকে আরও বাড়তে চলেছে দূরপাল্লার ট্রেন। শুক্রবার কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রী পীযূষ গয়াল টুইট করে জানান, ২ ডিসেম্বর থেকে পশ্চিমবঙ্গে মোট ২৭ জোড়া অর্থাত ৫৪টি মেল-এক্সপ্রেস চালু করতে চলেছে রেল।

দেশ জুড়ে করোনা পরিস্থিতি প্রায় একই জায়গায় দাঁড়িয়ে আছে। আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা এবং মৃত্যুমিছিল দুইই অব্যাহত। কিন্তু তার মধ্যেই গণপরিবহণকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে উদ্যোগী হয়েছে রেলও। সূত্রের খবর, বাংলায় এই মুহূর্তে বেশ কিছু দূরপাল্লার ট্রেন চলছে। সেই সংখ্যা বেড়ে ২৭ জোড়া হতে চলেছে ২ ডিসেম্বর থেকে। এই সংখ্যা খুব তাড়াতাড়িই দ্বিগুণ হবে বলেও জানা গিয়েছে রেল সূত্রে।

জানা গেছে, পূর্ব রেলের তরফে যে ট্রেন চালানোর অনুমতি চাওয়া হয়েছে হাওড়া, শিয়ালদহ ও কলকাতা স্টেশন থেকে, তার মধ্যে দিল্লি ও উত্তরবঙ্গগামী ট্রেনের সংখ্যাই বেশি।

তবে রেল মন্ত্রক জানিয়ে দিয়েছে, ট্রেনের সংখ্যা বাড়লেও ট্রেনগুলিতে এখনই জেনারেল কামরা এখনও লাগানো হবে না। কেউ কোনও ভাবেই জেনারেল কামরায় চলাফেরা করতে পারবেন না। করোনা বিধি যতদূর মানা সম্ভব, ততটা মেনেই চালাতে হবে ট্রেন, এ কথা রেলমন্ত্রীও স্পষ্ট করেছেন তাঁর টুইটে।

করোনার জেরে কয়েক মাস টানা লকডাউন চলার পরে যখন আনলক পর্ব শুরু হয়, তখনই প্রথম হাওড়া, শিয়ালদহ থেকে ১৫ জোড়া ট্রেন চালু করেছিল রেল। এর পরে পুজোর সময় আরও ৯ জোড়া স্পেশ্যাল ট্রেন চালু হয়, যা নভেম্বর মাস পর্যন্ত চলার কথা ছিল। তবে পরে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

এসবের পাশাপাশি লোকাল ট্রেন চালু হয়েছে। এর পরে লোকাল ট্রেনের সংখ্যা আরও বেড়েছে গত সোমবার। যদিও এখনও বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, বর্ধমানের একটি বড় অংশেই রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন এ রাজ্যে। কবে সেই সব রুটে ট্রেন চলে, সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More