সন্ধ্যা ৬টায় জাতির উদ্দেশে বক্তৃতা দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৬ টায় ফের জাতির উদ্দেশে বক্তৃতা দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়ার পর দেশে লকডাউন শুরু করার সময়ে ধারাবাহিক ভাবে জাতির উদ্দেশে বক্তৃতা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। কখনও জনতা কার্ফু ঘোষণা করেছিলেন তো কখনও পুরো লকডাউনের কথা জানিয়েছিলেন। পরে আবার একদিন দেশের উদ্দেশে বক্তৃতায় আত্মনির্ভর ভারতের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন।

কৌতূহলের বিষয় হল, আজ কী বলতে পারেন প্রধানমন্ত্রী?

সে ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট করে কিছু বলেনি প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয়। তবে সূত্রের মতে, উৎসবের মরশুমে মানুষকে সতর্ক হওয়ার ব্যাপারেই বার্তা তথা পরামর্শ দিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী।

গত কয়েক দিন ধরে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন লাগাতার বলেছেন যে উৎসবের মরশুমে সবাইকে সাবধান হতে হবে। কারণ, উৎসবের সময়ে ভিড় করলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ অতি দ্রুততার সঙ্গে ছড়াতে পারে। এ ব্যাপারে কেরলের উদাহরণ দিয়েছেন তিনি। কেরলে গোড়া থেকে সংক্রমণ খুবই নিয়ন্ত্রণে ছিল। বিদেশের সব পত্র পত্রিকাতেও কেরলের প্রশংসা হচ্ছিল। কিন্তু ওনম উৎসবের পর কেরলে লাফিয়ে লাফিয়ে সংক্রমণ বেড়েছে।

অনেকের মতে, প্রধানমন্ত্রীও হয়তো জাতির উদ্দেশে বক্তৃতায় সেই কথাই বলবেন। কারণ, দুর্গোৎসব, নবরাত্রি ও তার পর ছট পুজো গোটা দেশ জুড়ে পালিত হয়। কেরলে একটি উৎসব থেকে যদি মহামারি ভীষণ ভাবে ছড়িয়ে যায়, তা হলে এই উৎসবের অসতর্কতার বড় মাশুল দিতে হতে পারে। সব থেকে বড় আশঙ্কার কথা হল, হাসপাতালের পরিকাঠামো সীমিত।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসের টিকাকরণের ব্যাপারে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী একবার ইঙ্গিত দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, আগামী বছরের গোড়া থেকে টিকাকরণ শুরু হয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী সে ব্যাপারে স্পষ্ট কিছু বলেন কিনা সেও দেখার।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More