অধীর চৌধুরীকে নিয়ে খবরে বিভ্রান্তি, লোকসভায় রবণীত বিট্টু আপাতত দলের নেতৃত্বে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে একটি খবরে বিভ্রান্তি তৈরি হয় লোকসভায় অধীর চৌধুরীর ভূমিকা নিয়ে। অনেকেই বলতে শুরু করেন যে অধীর রঞ্জনকে সরিয়ে লোকসভা কংগ্রেস নেতা করা হয়েছে পাঞ্জাবের তরুণ সাংসদ রবনীত সং বিট্টুকে।

কিন্তু পরে স্পষ্ট হয়, বিষয়টি ঠিক নয়। লোকসভায় কংগ্রেসের অফিস বিয়ারার হলেন পাঁচ জন। অধীর চৌধুরী দলনেতা, গৌরব গগৈ উপ দলনেতা। এ ছাড়া কংগ্রেসের মুখ্য সচেতক পদে রয়েছেন কোদিকুন্নি সুরেশ। এবং তাঁর সঙ্গে রয়েছেন উপ মুখ্য সচেতক মানিক টেগোর ও রবনীত সিং বিট্টু।

সংসদে বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়েছে। এই সময়ে অধীর চৌধুরী বাংলার ভোট নিয়ে ব্যস্ত, গৌরব ব্যস্ত অসমের ভোট নিয়ে, কোদিকুন্নি সুরেশ কেরলার ভোটের জন্য দিল্লি আসতে পারছেন না। আর মানিক টেগোরের রাজ্য তামিলনাড়ুতেও বিধানসভা ভোট পর্ব শুরু হয়েছে।

ফলে রবনীত বিট্টুকেই লোকসভায় এখন কংগ্রেসের দলনেতার কাজ করতে হবে। কিন্তু এ ব্যাপারে কংগ্রেস সংসদীয় দলের তরফে কোনও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়নি। পুরো ব্যাপারটাই মৌখিক। কারণ, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সাময়িক ভাবে বিট্টুকেই দেখতে হবে লোকসভার বিষয়আশয়। বাকি চার জন অফিস বিয়ারারই ভোটে ব্যস্ত থাকবেন।

পাঞ্জাবের প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী বিয়ন্ত সিংয়ের নাতি হলেন রবনীত। তিনি লুধিয়ানার সাংসদ। ২০০৯ সালে বিট্টু প্রথমবার লোকসভা ভোটে জিতে সাংসদ হন। যুব কংগ্রেসে রাহুল গান্ধী সাংগঠনিক সংস্কার আনার পর পাঞ্জাবে প্রথম যুব কংগ্রেস সভাপতি হয়েছিলেন বিট্টু। রাহুল গান্ধীর অত্যন্ত আস্থাভাজন বলে তিনি পরিচিত। তা ছাড়া চলতি কৃষক আন্দোলনেও সক্রিয় ভূমিকায় দেখা গিয়েছে বিট্টুকে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More