বাংলার পথেই হাঁটল রাজস্থান! ‘স্বাস্থ্যসাথী’র ধাঁচে নতুন প্রকল্প ঘোষণা গেহলটের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পশ্চিমবঙ্গের ভোটের আগে ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের ঘোষণা করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার অনেকটা তাঁর দেখানো পথেই হাঁটল রাজস্থানও। রাজ্যবাসীর জন্য সার্বজনীন স্বাস্থ্য বিমা চালু করে নতুন চমক দিলেন কংগ্রেসশাসিত রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট।

রাজস্থানের প্রতিটি পরিবারের জন্য সরকারের তরফ থেকে ৫ লক্ষ টাকার মেডিক্লেম স্কিম চালু করা হবে, এদিন এমনটাই ঘোষণা করেছে রাজস্থান সরকার। এই নতুন ঘোষণা অনুযায়ী সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসার সুবিধা পাবে রাজস্থানবাসী। নতুন প্রকল্পটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘চিরঞ্জীবী স্বাস্থ্য বিমা প্রকল্প’। বিশ্বজনীন করোনা অতিমারীর মাঝে সরকারি এই স্বাস্থ্য বিমা রাজস্থানের মানুষের কাছে নিঃসন্দেহে স্বস্তিদায়ক।

শুধু তাই নয়, যে সার্বজনীন স্বাস্থ্য বিমা রাজস্থান ঘোষণা করেছে ভারতে এর আগে কখনো তা হয়নি। এদিন সে কথা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট বলেন, “রাজস্থান দেশের মধ্যে প্রথম রাজ্য হতে চলেছে যেখানে মানুষ প্রতি বছর পরিবারপিছু ৫ লাখ টাকার স্বাস্থ্য বিমা পাবেন। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে শুধু নাম নথিভুক্ত করলেই বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে।” রাজস্থানের ঘরে ঘরে চিকিৎসা পৌঁছে দিতে কংগ্রেস সরকার যে বদ্ধপরিকর এদিন সেকথাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

রাজস্থানের ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে নতুন এই স্বাস্থ্য বিমার কথা জানান হয়েছে। ঠিক কী কী সুবিধা পাওয়া যাবে এতে? জানা গেছে, সরকারি এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করালে রাজস্থানের কোনো ব্যক্তি ১৫৬৭টি প্যাকেজের চিকিৎসা পরিষেবা পেতে পারবেন। হাসপাতালে ভর্তির ৭ দিন আগে থেকে এবং হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার ১৫ দিন পর পর্যন্ত চিকিৎসার যাবতীয় খরচও জোগাবে সরকার। ডাক্তারের পারিশ্রমিক থেকে শুরু করে পরীক্ষা নিরীক্ষা, ওষুধপত্র, সমস্তই মিলবে সরকারি খরচে।

গতকাল অর্থাৎ ২ এপ্রিল থেকে রাজস্থান সরকারের ‘চিরঞ্জীবী স্বাস্থ্য বিমা প্রকল্পে’ পবিবার হিসেবে নাম নথিভুক্ত করার কাজ শুরু হয়ে গেছে বলে খবর।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More