তিন লক্ষ টাকায় বিয়ের ‘ডিল’, ১৩ দিনের মাথায় চম্পট নববধূর 

দ্য ওয়াল ব্যুরো: চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে। কিন্তু বউ পালালে? রাজস্থানের নারায়ণ সিং গুর্জরকে জিজ্ঞেস করলে অবশ্য এর উত্তর মিলবে। মুখ কাঁচুমাচু করে নারায়ণ জবাব দেবেন — তিন লাখ। টাকা দিয়ে বউ ‘কেনা’-র মাশুল এভাবে কড়ায়-গণ্ডায় দিতে হবে, এমনটা কখনও ভাবেননি নারায়ণ। মাত্র ১৩ দিনের মধুচন্দ্রিমা। এর মধ্যেই বিবাহ-জীবনে ইতি। টাকা হাতে আসতেই বেপাত্তা স্ত্রী। আর যে-ঘটকের ঘটকালিতে নারায়ণের মুখে চুলকালি পড়ল, ‘বৈবাহিক-বিপর্যয়ে’র পর তাঁর মুখে কথাটি নেই!

 

আদতে ঠিক কী ঘটেছে? পুলিশের খাতায় দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যাচ্ছে, নারায়ণ সিং গুর্জর রাজস্থানের ভারতপুর জেলার নাগলা মন্দির গ্রামের বাসিন্দা। সম্প্রতি তার বিয়ের কথা ওঠে। খবর পেয়েই সুদূর মধ্যপ্রদেশের ঢোলপুর জেলা থেকে উদয় হন হরি সিং গুর্জর। অবশ্য পুলিশের কাছে নারায়ণ জানিয়েছেন, হরি তাঁর পূর্বপরিচিত। গত ৬ মার্চ তিনি বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসেন। তখনই পাত্রী হিসেবে সুনীতার নাম তোলেন হরি। গোয়ালিয়রের ঘাতিগাঁওয়ের রামধন গুর্জরের মেয়ে সুনীতার অনেক সুখ্যাতিও করেন তিনি। ভালোমন্দ কথা আর প্রশংসা কানে যেতেই নারায়ণ ‘হ্যাঁ’ বলতে দেরি করেননি।

 

যদিও একটা ছোট্ট ‘কিন্তু’ ছিল। হরি সিং সাফ জানান, পাত্রী সুন্দরী, সুশীলা। নারায়ণের কপাল পোয়া বারো! অথচ এই রাজযোটকের বিনিময়ে তাঁর কী লাভ হল? এরপর কোনও ভণিতা না করে সোজাসুজি ৩ লক্ষ টাকা মধ্যস্থতার চার্জ বাবদ দাবি করেন হরি। হাতের লক্ষ্মী পায়ে ঠেলা উচিত নয় — এই প্রবাদকে মনে করে তখনকার মতো টাকা মিটিয়ে ফেলেন নারায়ণ। এরপর শুভ দিন দেখে ছাঁদনাতলায় মালাবদলেও খুব একটা দেরি হয়নি।

 

ঠিক এরপরেই বিপত্তি। তখনও বিয়ের দু’সপ্তাহ কাটেনি। ২২ মার্চ সকালে কী একটা কাজে বাইরে গেছিলেন নারায়ণ। সুনীতা ঘরে একাই ছিলেন। কিন্তু ফিরে এসেই চক্ষু চড়কগাছ! বেপাত্তা বউ। সাজগোজের একটা জিনিসও ফেলে যাননি তিনি। বমাল চম্পট যাকে বলে! চারিদিকে খোঁজ চালিয়েও লাভ হয়নি। বাধ্য হয়ে পরিজনের পরামর্শে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন নারায়ণ।

 

আর হরি সিং? কী বলছেন তিনি? বিরস বদনে নারায়ণ জানান, শুধুমাত্র বিয়ের দায়িত্বটুকুই নাকি নিয়েছিলেন হরি। এরপরের দুর্যোগের কোনও দায়ভার তাঁর নেই, সেই গ্যারান্টিও তিনি দেননি। অতএব, তিন লাখের একটি কানাকড়িও নারায়ণ ফেরত পাবেন না। রীতিমতো পেশাদারি গলায় জবাব দিয়েছেন গোয়ালিয়রের হরি সিং গুর্জর।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More