অর্থনীতির ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত, সেনসেক্স বাড়ল ৮০০ পয়েন্ট, উর্ধ্বমুখী নিফটিও

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গত শুক্রবার ধস নেমেছিল শেয়ার বাজারে। গত ১১ মাসে কখনও একইদিনে শেয়ার সূচক এত নীচে নামেনি। কিন্তু সোমবার বাজার খুলতেই ফের উঠতে শুরু করেছে সূচক। গত শুক্রবারই সন্ধ্যায় জানা যায়, অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরের ত্রৈমাসিকে ফের বিকশিত হয়েছে জিডিপি। মন্দার কবল থেকে বেরিয়ে এসেছে ভারতের অর্থনীতি। এছাড়া মার্কিন অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য দেওয়া হচ্ছে স্টিমুলাস প্যাকেজ। এই দু’টি কারণেই এদিন সেনসেক্স ও নিফটি হয়েছে উর্ধ্বমুখী।

সকাল ১০ টা ২৭ মিনিটে পাওয়া খবরে জানা যায়, সেনসেক্স উঠেছে ৮৮৯ পয়েন্ট বা ১.৮১ শতাংশ। তা পৌঁছেছে ৪৯,৯৮৯-এর ঘরে। নিফটি ২৪৪ পয়েন্ট বা ১.৭ শতাংশ উঠে পৌঁছেছে ১৪,৭৭৩ এর ঘরে।

এদিন সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে ব্যাঙ্ক ও গাড়ি নির্মাতা সংস্থার শেয়ার। সেনসেক্সে নথিভুক্ত শেয়ারগুলির মধ্যে এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, ইনফোসিস, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক এবং টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিসের শেয়ারের দাম বেড়েছে সবচেয়ে বেশি।

নিফটির অন্তর্গত গাড়ি নির্মাতা সংস্থাগুলির শেয়ারের দাম বেড়েছে গড়ে ১.৭ শতাংশ। নিফটি ব্যাঙ্ক, মিডিয়া, আইটি, ধাতু, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক, বেসরকারি ব্যাঙ্ক এবং গৃহনির্মাণ সংস্থাগুলির শেয়ারের দাম বেড়েছে গড়ে এক শতাংশ। এদিন নিফটির মিডক্যাপ ও স্মলক্যাপ শেয়ারগুলির ভাল চাহিদা ছিল। তার ফলে নিফটি মিডক্যাপ হান্ড্রেড ইনডেক্স বেড়েছে ০.৬ শতাংশ। নিফটি স্মলক্যাপ হান্ড্রেড ইনডেক্স বেড়েছে এক শতাংশ।

নিফটিতে যে ৫০ টি শেয়ার আছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি দাম বেড়েছে পাওয়ার গ্রিডের। এছাড়া আল্ট্রাটেক সিমেন্ট, হিরো মোটোকর্প, গ্রাসিম ইন্ডাস্ট্রিজ, টেক মাহিন্দ্রা, ইন্ডিয়ান অয়েল, ডিভিস ল্যাব, ইউপিএল, এইচসিএল টেকনোলজিস এবং ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্কের শেয়ারের দাম বেড়েছে দুই থেকে তিন শতাংশ।

২০২০-২১ সালের আর্থিক বছরে সেপ্টেম্বর মাসে যে ত্রৈমাসিক শেষ হয়, তার রিপোর্টে জানা গিয়েছিল, জিডিপি সংকুচিত হয়েছে ৭.৩ শতাংশ হারে। কিন্তু ডিসেম্বরে শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকে দেখা যায়, জিডিপি বেড়েছে ০.৪ শতাংশ। সামগ্রিকভাবে চলতি আর্থিক বছরে জিডিপি কমবে আট শতাংশ।

সোমবার এশিয়ার অন্যান্য দেশেও শেয়ার সূচক হয়েছে উর্ধ্বমুখী। গত সপ্তাহে বন্ডের বাজারে ব্যাপক ওঠাপড়া দেখা গিয়েছে। কিন্তু চলতি সপ্তাহে সম্ভবত স্থিতিশীলতা বাড়বে বাজারে।

এর মধ্যে জানা যায়, জনসন অ্যান্ড জনসন কোম্পানির কোভিড ভ্যাকসিন অনুমোদন পেয়ে গিয়েছে। সম্ভবত মঙ্গলবার থেকে নানা দেশে ওই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। এই খবরে চাঙ্গা হয়েছে শেয়ার বাজার।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More