মমতার নিশানায় মোদী, প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গে ভোট-মেলা বন্ধে তৈরি নন! এবার কটাক্ষ শিবসেনার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুক্রবারই রাজ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণের জন্য বহিরাগত তত্ত্ব খাড়া করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বিঁধে বলেন, এখানে এসে করোনা ছড়াবেন না! এবার প্রায় তাঁর সুরেই কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির এককালের বিশ্বস্ত শরিক, বর্তমানে  কট্টর বিরোধী শিবসেনা দেশে কোভিড-১৯ এর সেকেন্ড ওয়েভের জন্য কেন্দ্রকে কাঠগড়ায় তুলল।

সম্প্রতি হু হু করে সারা দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। মহারাষ্ট্র, দিল্লির পাশাপাশি উদ্বেগজনক  চিত্র বাংলাতেও। গতকাল নবদ্বীপের নির্বাচনী জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি নরেন্দ্র মোদীকে টার্গেট করে বলেন, বাংলাকে বাংলার মতো থাকতে দিন, এখানে এসে কোভিড ছড়াবেন না। অনেক আগেই আপনাকে চিঠি লিখেছিলাম, বিনা পয়সায় ইঞ্জেকশন, ওষুধ দেওয়ার অনুমতি দিন। তখন দেননি কেন? পলিটিক্স ছাড়া  কিছুই বোঝেন না! রাজ্যে বহিরাগতদের নিয়ে এসে বিজেপি করোনা ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন মমতা।

আর দলীয় মুখপত্র সামনা-র সম্পাদকীয়তে  শিবসেনা বলেছে, কেন্দ্র ‘রাজনৈতিক ডোজ’  কমিয়ে অতিমারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মূল নজর দিলে এতদিনে কোভিড পরিস্থিতি হাতের মুঠোয় চলে আসত। ‘রাজনৈতিক ডোজ’ বলতে তারা পশ্চিমবঙ্গ সহ কয়েকটি রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী ও তাবড় বিজেপি নেতাদের ভোটপ্রচার, সমাবেশকেই ইঙ্গিত করছে। তারা বলেছে, কেন্দ্র করোনা পরিস্থিতিকে জরুরি ভিত্তিতে সঠিক ভাবে মোকাবিলায় তৈরি নয়। করোনার প্রথম ঢেউয়ের জন্য চিনকে দোষী করা হল। আর বর্তমান করোনা অতিমারীর জন্য দায়ী  কেন্দ্র, নির্বাচন কমিশন। যেসব রাজ্যে ভোট হয়ে গিয়েছে বা ভোটপর্ব চলছে, সেখান থেকে ৫০০ গুণ দ্রুত কোভিড ছড়াচ্ছে। নির্বাচন আর রাজনৈতিক স্বার্থপরতার জন্য দিল্লির শাসকরা কোভিডের মোকাবিলা না করে অতিমারীর ঢেউ তৈরি হতে দিল।

পশ্চিমবঙ্গ, অসম, কেরল, তামিলনাড়ু, পুদুচেরির ভোটপ্রচারকেই কোভিড-১৯ সংক্রমণের জন্য দায়ী করে কুম্ভমেলার জন্যও করোনা সংক্রমণ গতি পেয়েছে বলে দাবি করেছে শিবসেনা। বলেছে, কোভিডের দাপট বহাল রয়েছে। কিন্তু ভোটের সমাবেশ, কুম্ভমেলা বন্ধ হয়নি। লাখ লাখ ভক্ত কুম্ভে জড়ো হয়েছে,  গঙ্গায় ডুব দিয়েছে, যা থেকে সারা দেশে  করোনা সংক্রমণ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী মেলা বন্ধ করতে তৈরি নন। তাহলে কুম্ভের জন্য সাধু-সন্তদের দোষ দিয়ে কী লাভ?

সম্পাদকীয়তে কেন্দ্রকে দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে নিজের অহঙ্কার, রাজনৈতিক লাভের ভাবনা দূরে সরিয়ে রাখতে বলে শিবসেনা দাবি করেছে, কোভিড সংক্রমণের বাড়াবাড়ি কোনও রাজ্যের ব্যর্থতা নয়, ‘কেন্দ্রের উদাসীনতা’র ফল।

 

 

 

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More