পাকিস্তানের বিমান বাজেয়াপ্ত করল মালয়েশিয়া, বিমানবন্দরের মেঝেয় দু’রাত কাটাতে হল যাত্রীদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আরও একবার আন্তর্জাতিক দরবারে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের। এবার আর শুধু মুখ পোড়া নয়, চরম হয়রানির মুখে পড়তে হল ১১৮ জন সাধারণ মানুষকেও। এমনকি প্রায় দু’দিন বিমানবন্দরে আটকে থাকতে হল শতাধিক ক্রু মেম্বারকে। পণ্ড হল সমস্ত কাজকর্ম। ঘটনায় ছিছিক্কার পড়ে গেছে সারা বিশ্বে।

জানা গেছে, শুক্রবার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশানাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি বোয়িং-৭৭৭ বিমান বাজেয়াপ্ত করে মালয়েশিয়া সরকার। অভিযোগ, ২০১৫ সালে পিআইএ ভিয়েতনামের একটি সংস্থার কাছ থেকে ওই বোয়িং-৭৭৭ সমেত দু’টি বিমান ভাড়ায় নিয়েছিল। সেই ভাড়া এতটাই বকেয়া পড়ে গেছিল, যে পাকিস্তানের এই বিমানটিকেই স্থানীয় আদালতের নির্দেশের পর‌ে বাজেয়াপ্ত করা হয় যাত্রী-সুদ্ধ।

আর্থিক সমস্যায় এমনিতেই জর্জরিত পাকিস্তান, এই ঘটনায় এবার আন্তর্জাতিক মঞ্চে বেআব্রু হয়ে গেল তার অবস্থা। যদিও ঘটনার পরে পিআইএ জানিয়েছে, মালয়েশিয়ার এক স্থানীয় আদালত একটি বিমানকে বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছে। পাকিস্তান কূটনৈতিক বার্তার মাধ্যমেই এই মামলাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

সূত্রের খবর, বিমানটি বাজেয়াপ্ত করলেও বিমানের যাত্রীদের বিকল্প ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। বাজেয়াপ্ত করা বিমানটি করাচি থেকে মালয়েশিয়া গিয়েছিল। যাত্রীদের দাবি, আচমকাই বিমান আটকে দেওয়া হয়। যদিও তাঁদের এর কারণ জানানো হয়নি বলেই অভিযোগ। বলা হয় যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিমান আর যাবে না।

শেষমেশ শনিবার রাতে বিমানের যাত্রীদের দু’টি দলে ভাগ করে ইসলামাবাদ পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। ১১৮ জনের একটি দল মালয়েশিয়া থেকে একটি বিমানে পৌঁছন সেখানে, ৬৫ জনের আর একটি দল দোহা হয়ে অন্য একটি বিমানে ফেরেন। রবিবার রাত আড়াইটেয় সকলে পৌঁছন তাঁরা। ক্রু মেম্বাররা অবশ্য এখনও আটকে রয়েছেন।

যাত্রীদের অভিযোগ, এই গোটা ঘটনায় তাঁদের কোনও ভূমিকা ছিল না। অথচ তা সত্ত্বেও মালয়েশিয়ার পাক দূতাবাসের তরফে বা পিআইএ-র তরফে কোনও রকম সহযোগিতা করা হয়নি তাঁদের সঙ্গে। দুটো দিন কার্যত বিমানবন্দরের মেঝেতে ঘুমোতে হয়েছে তাঁদের। মেলেনি খাবার, জল। যাত্রীদের অনেকের লাগেজও এখনও আটকে আছে কুয়ালা লামপুরে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More