ওড়িশাকে হারিয়ে জয়ের হ্যাটট্রিকই লক্ষ্য, লিগ শীর্ষেই থাকতে চায় এটিকে মোহনবাগান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রথম দুটো ম্যাচ জিতে লিগের শীর্ষে রয়েছে এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু তাতে যাতে দলের ফুটবলাররা আত্মতুষ্ট না হয়ে পড়েন সেটাই বারবার ফুটবলারদের বোঝাচ্ছেন অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। আর তাই ফুটবলারদের পরের টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ওড়িশা এফসিকে হারিয়ে জয়ের হ্যাটট্রিকই এখন প্রধান লক্ষ্য দলের। আর তেমনটা হলে লিগ শীর্ষেই থাকবে তারা। অর্থাৎ এক ঢিলে দুই পাখি মারা হবে।

ডার্বিতে রয় কৃষ্ণ ও মনবীর সিং গোলে দিলেও ম্যাচের সেরা হয়েছে কার্ল ম্যাকহুগ। কারণ মোহনবাগান মাঝমাঠে দাঁড়িয়ে এসসি ইস্টবেঙ্গলের যাবতীয় আক্রমণ ভোঁতা করার দায়িত্ব ছিল তাঁর উপরেই। আর সেই কাজ খুব ভালভাবে করেছে কার্ল। তাতে যথেষ্ট খুশি আয়ারল্যান্ডের এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার। কিন্তু তাতে আবেগে না ভেসে বরং ফোকাস ধরে রাখতেই চান তিনি।

মোহনবাগান মিডিয়া টিমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কার্ল বলেছেন, “ঐতিহাসিক ডার্বিতে সেরার পুরস্কার পাওয়ায় খুবই আনন্দিত। কিন্তু তার থেকেও বেশি আনন্দ হয়েছে ডার্বি জিতে। এসসি ইস্টবেঙ্গলের মতো শক্তিশালী টিমকে হারিয়ে লিগ শীর্ষে ওঠায় খুবই খুশি হয়েছি।”

গত রবিবার থেকেই ওড়িশা ম্যাচের প্রস্তুতি শুরু করেছেন হাবাস। ওড়িশা দলকে মোটেই হালকা ভাবে নিচ্ছেন না হাবাস। হায়দরাবাদের কাছে হারলেও জামশেদপুরের বিরুদ্ধে শেষ মুহূর্তে ড্র করেছে মার্সেলিনহোর দল। তাই পরের ম্যাচ জেতার জন্য মুখিয়ে থাকবে তারা। তাই কোনও মতেই যাতে ফুটবলারদের ফোকাস নষ্ট না হয় সেদিকেই লক্ষ্য রাখছেন স্প্যানিশ কোচ।

হাবাসের নির্দেশে ওড়িশার খেলা দেখতে হয়েছে ফুটবলারদের। তারপরে ধরে ধরে পরিকল্পনা করেছেন তিনি। সবাইকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। কারণ আগামী আটদিনে দিনটি ম্যাচ খেলতে হবে সবুজ-মেরুন ব্রিগেডকে। এসব ক্ষেত্রে ফুটবলারদের ক্লান্তি আসা খুবই স্বাভাবিক। সেটা যাতে না হয় তার জন্য অনুশীলনের অন্যরকমের সূচি তৈরি করেছেন হাবাস। পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তন করার ফিফার নতুন নিয়মের সুবিধাও নিতে চাইছেন তিনি।

চলতি আইএসএলে সব দলকেই ভোগাচ্ছে চোট। কারণ লকডাউনের কারণে সবাই বহুদিন অনুশীলনের বাইরে ছিলেন। প্রথম ম্যাচেই নির্ভরযোগ্য সুসাইরাজ চোট পেয়েছেন। তাই দলের মধ্যে যাতে চোট-আঘাত বেশি না হয় সেদিকেও নজর রাখতে বলা হচ্ছে ফুটবলারদের। অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ফিটনেস ট্রেনারকে। ফুটবলারদের খাওয়া দাওয়া থেকে শুরু করে শরীরচর্চা, সবদিকেই নজর থাকছে তাঁর। লম্বা লিগে প্লেয়ারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলাতে হবে, সেটা জানেন হাবাস। তাই তিনি রিজার্ভ বেঞ্চকেও তৈরি রাখতে চাইছেন। এখন দেখার আগামীকাল জয়ের হ্যাটট্রিক করে লিগ শীর্ষেই মোহনবাগান থাকতে পারে কিনা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More