পুণেতেই হবে ওয়ান ডে সিরিজ, ফাঁকা গ্যালারির সামনে খেলতে হবে কোহলি, রুটদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রথমে ভাবা হয়েছিল, ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ পুণে থেকে সরে চলে যেতে পারে অন্য কেন্দ্রে। সেই মতো বিসিসিআই-য়ের কাছে বিকল্প ছিল চারটি স্টেডিয়াম। কিন্তু ইন্দোর ও জয়পুর বাতিল হয়ে যাওয়ায় লড়াই ছিল ইডেন গার্ডেন্স ও বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের মধ্যে।

সেদিক থেকে ইডেনই এগিয়ে ছিল রোটেশন প্রথার দিক থেকে। তারপর বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রভাবে ম্যাচ হতেই পারত কলকাতায়। কিন্তু পুণে প্রশাসন জানিয়ে দিয়েছে, তারা তিনটি ম্যাচ করতে দিতে রাজি রয়েছেন। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতি ফের ভয়াবহ হওয়ায় খেলা হবে ফাঁকা গ্যালারির সামনে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের ক্ষেত্রেও প্রথম দুটি ম্যাচে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামের সামনে খেলা হয়েছিল। পরের দুটি টেস্টে ৫০ শতাংশ দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু ওয়ান ডে সিরিজের ম্যাচগুলি দুই দেশের ক্রিকেটারদের ফাঁকা গ্যালারির সামনেই খেলতে হবে। প্রসঙ্গত, ২৩ মার্চ শুরু ওয়ানডে সিরিজ, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচ হবে যথাক্রমে ২৬ ও ২৮ মার্চ।

শনিবারই রাতে মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে পুণেতে তিন ম্যাচের সিরিজ আয়োজনের জন্য সবুজ সংকেত দেওয়া হয়। কিন্তু উদ্ধব ঠাকরে সরকারের পরিষ্কার নির্দেশ, উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে কোনওভাবেই দর্শকদের স্টেডিয়ামে ঢোকার অনুমতি দেওয়া যাবে না। স্থানীয় প্রশাসনের সিদ্ধান্তে সায় জানিয়েছে বিসিসিআই আধিকারিকরাও।

মুম্বই-সহ মহারাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি শহর ও শহরতলিতে ক্রমেই বাড়ছে সংক্রমণ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতিমধ্যে একাধিক জায়গায় আংশিক এবং কিছু জায়গায় সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। কোথাও আবার জারি নাইট কারফিউ। এই পরিস্থিতিতে ২৭ এবং ২৮ ফেব্রুয়ারি জনতা কারফিউ জারি হয়েছে মহারাষ্ট্রের লাতুর জেলায়। ২৪ ঘণ্টায় সে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত সাড়ে ৮ হাজারেরও বেশি মানুষ। এমন অবস্থায় পুণে থেকে সিরিজ সরানোর চিন্তাভাবনাও করা হচ্ছিল।

জট কাটাতে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে বৈঠক করে মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থা। তারপরই সংস্থার তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলা হয়, “মহারাষ্ট্রের বাড়তে থাকা কোভিড সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ম্যাচ পুণেতেই হবে, তবে দর্শকশূন্য মাঠে খেলবে ভারত ও ইংল্যান্ড।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More