ধোনি, কোহলিকে টপকে এবারও আইপিএলের ধনী ক্রিকেটার কামিন্স!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গতবার আইপিএলেও ছিলেন তিনি সর্বোচ্চ দরের ক্রিকেটার, এবারও সেই নজির গড়তে চলেছেন অস্ট্রেলিয়ার নামী পেসার প্যাট কামিন্স। আরব আমিরশাহীতে তাঁর পারফরম্যান্স আহামরি ছিল, বলা যাবে না। কিন্তু তিনি যেহেতু বড় নাম, তাই এবারও কেকেআর কামিন্সের প্রতি ভরসা রাখল।

আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারিতে আইপিএল নিলাম অনুষ্ঠান হতে চলেছে চেন্নাইয়ে। সেইসময় ভারত ও ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজ চলবে। সেই অনুষ্ঠান শুরুর আগে পর্যন্ত কামিন্সই সবচেয়ে দরের ক্রিকেটার। তাঁকে কেকেআর নিয়েছিল সাড়ে ১৫ কোটি টাকা দিয়ে। এবার কামিন্সকে নিতে হবে তার চেয়েও বেশি দামে।

এবার ভারতেই সম্ভবত হবে আইপিএলের আসর। দলে কোন খেলোয়াড়কে রাখা হবে,  কাদের ছেড়ে দেওয়া হবে, ইতিমধ্যে সেই তালিকা প্রকাশ করে দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। তাতে দেখা যাচ্ছে কামিন্সকে রেখে দিয়েছে কেকেআর। সেই কারণে এম এস ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের টপকে দামী ক্রিকেটারের তকমা পাচ্ছেন কামিন্সই।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং চেন্নাই সুপার কিংসের মহেন্দ্র সিং ধোনি দু’জনেই আইপিএলের নামী তারকাদের মধ্যে অন্যতম। এমনকি বিরাট কোহলিকেও বেঙ্গালুরু দেয় ওই ১৫ কোটিরই মতো। কিন্তু কামিন্সকে ধরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেই কারণে তাঁকে বেশি টাকা দিয়ে এবার নিতে হবে। না হলে অন্য দল আরও বেশি অর্থে সেই ক্রিকেটারকে নিয়ে নিতে পারে।

২০২০ সালের আইপিএলের নিলামে দিল্লি ক্যাপিটালস এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর সঙ্গে লড়াইয়ের পর কামিন্সকে ১৫.৫ কোটি টাকায় কিনে নেয় শাহরুখ-জুহি চাওলার দল। এবারের আইপিএলের আগেও তাঁকে দলে রেখে দেওয়ার ব্যাপারেই সিদ্ধান্ত নেয় নাইট শিবির। আর এই কারণেই রোহিত-ধোনির থেকেও বেশি টাকা পেতে চলেছেন তিনি। যদিও গত আইপিএলে একদমই ভাল পারফরম্যান্স করতে পারেননি কামিন্স। ১৪ ম্যাচে নিয়েছিলেন ১২টি উইকেট। এর মধ্যে শেষ ছ’টি উইকেট পেয়েছিলেন গ্রুপ লিগের শেষ দুটি ম্যাচে।

বিদেশি তারকাদের মধ্যে কামিন্স ছাড়াও কলকাতা নাইট রাইডার্স ধরে রেখেছে আন্দ্রে রাসেল,  সুনীল নারিন, লকি ফার্গুসন,  ইয়ন মরগ্যান, টম সেফার্টকে। ছেড়ে দিয়েছে ইংলিশ ব্যাটসম্যান টম ব্যান্টন ও অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রিনকে। এবার নিলামে কেকেআর ১১ কোটি হাতে রেখে নামবে। কারণ তারা বেশিরভাগ বিদেশী ক্রিকেটারদের রেখে দিয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More