বরোদা দলে হার্দিকের দাদার ‘দাদাগিরি’, শিবিরই ছেড়ে চলে গেলেন সতীর্থ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ক্রিকেট মরসুম শুরুরদিনই বরোদা দলে মারাত্মক অশান্তি। রবিবার থেকেই শুরু হয়েছে ঘরোয়া টোয়েন্টি ২০ ক্রিকেট মুস্তাক আলি টুর্নামেন্ট। তার আগেই দলের সহ অধিনায়ক দীপক হুদা শিবির ছেড়ে চলে গেলেন। তিনি শুধু চলেই যাননি, উপরন্তু দলের অধিনায়ক ভারতীয় দলের নামী সদস্য ক্রুনাল পান্ডিয়ার বিরুদ্ধে মারাত্মক সব অভিযোগ করেছেন। হার্দিক পান্ডিয়ার থেকে দুই বছরের বড় তিনি।

বরোদা ক্রিকেট সংস্থাকে দেওয়া সেই ই-মেলে দীপক জানিয়েছেন, ‘‘দলের বাকি ক্রিকেটারকে পাত্তাই দেয় না ক্রুনাল। এমনকি তিনি নিজেকে কেউকেটা মনে করে। দলের সতীর্থদের রীতিমতো গালিগালাজ করে থাকে। দীপক এও লিখেছেন, দলের মধ্যে ক্রুনালের এমন দাদাগিরি কেউ সহ্য করতে পারে না।

তিনি আরও লিখেছেন, ‘‘আমি বরোদা ক্রিকেট সংস্থার হয়ে গত ১১ বছর ধরে ক্রিকেট খেলছি। বর্তমানে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতেও সুযোগ পেয়েছি। এই মুহূর্তে আমি খুবই হতাশ, বিষণ্ন এবং চাপের মধ্যে আছি।’’

দীপক আরও যোগ করেছেন, ‘‘গত বেশ কয়েকদিন ধরে দলের অধিনায়ক ক্রুনাল পান্ডিয়া আমার বিরুদ্ধে খুবই বাজে ভাষা ব্যবহার করছে এবং সতীর্থদের সামনে আমাকে গালাগালি করেছেন। নিজের দাদাগিরি দেখিয়ে আমাকে অনুশীলন থেকেও বের করে দিয়েছে, আমি খুবই দুঃখ পেয়েছি। এ অবস্থায় আমি খেলতে পারব না। কারণ, অধিনায়ক সুযোগ পেলেই আমাকে খোঁচা দিচ্ছেন এবং অনুশীলনে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছেন।’’

বরোদার হয়ে এখনও পর্যন্ত ৪৬টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ ও ১২৩টি কুড়ি ওভারের ম্যাচ খেলেছেন দীপক। এবারের আসরেও সবগুলি ম্যাচ খেলার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু অধিনায়কের দুর্ব্যবহারের শিকার হয়ে নিজ থেকেই সরে গিয়েছেন টুর্নামেন্ট থেকে।

রবিবার ম্যাচের আগে দীপকের এই অভিযোগকে আমল দেননি হার্দিকের সহোদর ক্রুনাল। আর ম্যাচে দেখিয়েছেন পারফরম্যান্সের জাদু। উত্তরাখণ্ডের বিপক্ষে বরোদার ৫ রানের জয়ের ম্যাচে ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল ক্রুনাল। প্রথমে ব্যাট হাতে ৪২ বলে খেলেছেন ৭৬ রানের ইনিংস। পরে বল হাতে ৩৩ রান দিয়ে নিয়েছেন দুই উইকেট।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More