গোয়ায় কালই আসছেন লাল-হলুদ কোচ, শহরে মোহনবাগানের লিগ উৎসব রবিবার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : শারদোৎসবের আগেই রবিবার সবুজ মেরুন উৎসব হবে কলকাতার রাস্তায়। সেদিন পাল তোলা নৌকার সারথি ও সমর্থকরা কল্লোলিনীকে মাতিয়ে দেবেন। ১৮ অক্টোবর রবিবার সল্টলেক বাইপাসের বিলাসবহুল হোটেলে নিয়ে আসা হবে কাঙ্খিত আই লিগ ট্রফি। সেদিন হাজির থাকবেন ফেডারেশনের কর্তাব্যক্তিরা ও ক্লাবের পদাধিকারীরা।

গত মরসুমে চার ম্যাচ আগেই কিবু ভিকুনার কোচিংয়ে মোহনবাগান আই লিগ ট্রফি জয় নিশ্চিত করে। তারপর আর খেলা হয়নি, কারণ সেইসময় সারা দেশে চলছিল লকডাউন। সেই জন্যই লিগ জয়ের উৎসব করতে পারেননি সদস্য,সমর্থকরা।

এবার সেই উদ্যোগই নিয়েছে ফেডারেশন ও ক্লাব যৌথ প্রয়াসে। রবিবার যুবভারতীর পাশের নামী হোটেলে এই ট্রফি প্রদান অনুষ্ঠান হবে সকাল এগারোটার সময়। ট্রফি তুলে দেবেন আই লিগের সিইও সুনন্দ ধর। থাকবেন মোহনবাগান ক্লাবের সভাপতি স্বপনসাধন বসু এবং কার্যকরী সমিতির সমস্ত সদস্য। ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকেও আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।

করোনা আবহের কারণে অধিকাংশ ফুটবলার থাকতে পারবেন না ওই অনুষ্ঠানে। তা ছাড়াও গতবারের চ্যাম্পিয়ন দলের কোচ কিবু ভিকুনা এবার আইএসএলে যোগ দিয়েছেন কেরালা ব্লাস্টার্স দলে। ফলে তাঁরা যাতে এই অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকতে পারেন, তাই বিশেষ জুম কলের মাধ্যমে তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হবে। সেই সঙ্গে ভিডিওতে তুলে ধরা হবে মোহনবাগানের আই লিগ জয়ের টুকরো টুকরো ছবি।

ট্রফি নিয়ে পরে বিশাল মিছিলের আয়োজন করা হয়েছে সেদিনই। খোলা জিপে একটি কাঁচের সুদৃশ্য বাক্সে সেই ট্রফি নিয়ে শুরু হবে মিছিল। শহরের চারটি জায়গা থেকে ওড়ানো হবে বিশেষ বেলুন। সেই চারটি জায়গা হল হাওড়া, ধর্মতলা, দেশপ্রিয় পার্ক এবং হেদুয়া-বিবেকানন্দ রোড। হোটেল থেকে বেরিয়ে কাদাপাড়া বাইপাস, দত্তাবাদ বাইপাস, বেঙ্গল কেমিক্যাল বাইপাস ধরে মিছিল যাবে উল্টোডাঙ্গা হাডকো মোড়ে।

তার পরে সমর্থকদের ওই মিছিল যাবে অরবিন্দ সেতু ধরে খান্না, এপিসি রোড ধরে ফড়িয়াপুকুর, শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে। পরে হাতিবাগান, হেদুয়া, বিবেকানন্দ রোড, গিরীশ পার্ক, সিআর অ্যাভিনিউ, ধর্মতলা হয়ে পৌঁছবে মোহনবাগান ক্লাবে।

উৎসবের এখানেই শেষ, মনে করার কোনও কারণ নেই। আগামী ২ থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত সদস্য-সমর্থকদের জন্য ক্লাব তাঁবুতেই কাঁচের বাক্সে রাখা থাকবে আই লিগ। প্রতিদিন ১২টা থেকে বিকেল ৫ পর্যন্ত ক্লাবে এসে ট্রফির সঙ্গে ছবি তুলতে পারবেন সমর্থকরা। যদিও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে মোহনবাগান ক্লাবকে অনুরোধ করা হয়েছে, রবিবার যাতে সামাজিক দুরত্ববিধি মেনে সব কাজ শেষ হয়, সেটি নিশ্চিত করতে হবে।

তার মধ্যেই বৃহস্পতিবার ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, শুক্রবারই দল গোয়া রওনা দেবে। কোচ রবি ফাউলারও লন্ডন থেকে শুক্রবারই শিবিরে এসে যোগ দেওয়ার কথা। তাঁর সঙ্গে আসছেন বাকি সাপোর্ট স্টাফও। যদিও গোয়ার হোটেলে পৌঁছে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে কোচসহ বাকিদেরও। দেশের ফুটবলাররাও গোয়ায় পৌঁছে যাবেন কালই।

এদিকে, ইস্টবেঙ্গল এক বছরের চুক্তিতে নিল বিসব্রেন রোয়ারের প্রাক্তন অ্যারণ অ্যামোডি হলওয়েকে। তিনিও কোচ ফাউলারের হাত ধরেই আসছেন। ২৭ বছরের এই স্ট্রাইকার গত মরসুমে ২৩টি ম্যাচ খেলেছেন।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More