ক্রীড়ামন্ত্রীর সঙ্গে কথা ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের, জট খুলতে ফের মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের অপেক্ষা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তৃপক্ষ ও ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্টের মধ্যে জট কাটাতে ফের উদ্যোগী ভূমিকা নিতে পারেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ দুই পক্ষের মধ্যে কিছুতেই কোনও সমঝোতা হচ্ছে না। এর আগে আইএসএলে দল খেলবে কিনা, খেললেও দলকে আর্থিকভাবে কারা সহায়তা করবে, সেই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীই উদ্যোগী ভূমিকা গ্রহণ করেছিলেন। তিনিই ব্যবস্থা করে দেন সিমেন্ট কোম্পানিকে।

যদিও ব্যবস্থা হলেও দুই পক্ষের মধ্যে যে সরকারি চুক্তি, সেটি হয়নি। কেননা যে শর্তগুলি বিনিয়োগকারী সংস্থার আধিকারিকরা ক্লাবকে দিয়েছেন, তাতে আপত্তি রয়েছে কর্তাদের। তাঁরা মনে করছেন, এই শর্ত মানলে তাদের অধিকার বলে কিছু থাকবে না, সবটাই বিনিয়োগকারীদের কাছে বশ্যতা স্বীকার করতে হবে। সদস্য-সমর্থকদের সুবিধে-অসুবিধের ক্ষেত্রেও ক্লাব কর্তৃপক্ষের কোনও নিয়ন্ত্রন থাকবে না।

এই নিয়ে বিতর্কের জন্যই বহুদিন ধরে চুক্তিপত্রে করেনি ক্লাব কর্তারা। তাঁরা জেদ ধরে বসে রয়েছেন, এমনকি ইনভেস্টরও জানিয়ে দিয়েছে, যতদিন না চুক্তিতে সই না হবে, ততদিন তারা কোনও আর্থিক বিনিয়োগ করবে না। এ জন্য দলগঠনও বাকি পড়ে রয়েছে।

ক্লাব এ কারণেই বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকারের ক্রীড়া ও যুবকল্যাণমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে কথা বলেছেন। এমনকি কথা বলেন অন্য আরও এক মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গেও। ক্রীড়ামন্ত্রীকে পুরো বিষয়টি জানান ক্লাবের অন্যতম নামী কর্তা দেবব্রত সরকার।

আলোচনার পরে ক্রীড়ামন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন এই বিষয়ে তিনি কথা বলবেন তৃণমূল নেত্রীর সঙ্গে। এও বলা হয়েছে, যেহেতু তিনি এই বিষয়টি আগেই চূড়ান্ত করে দিয়েছেন, তারপর এটি নিয়ে বললে তিনি ক্ষুব্ধ হতে পারেন। তবুও এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বলা হবে।

এদিকে, গতকাল ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্টের পক্ষ থেকে ক্লাবকে চিঠি দিয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে, শর্তের কোথায় ঠিক সমস্যা রয়েছে, সেগুলি সম্পর্কে জানাতে। তারা সেটি নিয়ে কথা বলে ক্লাবকে জানিয়ে দেবে। তার মধ্যে লাল হলুদ কর্তারা সরকারের পক্ষের সমর্থন আদায়েরও চেষ্টা করছে। দেখার, এখন কোথাকার জল কোথায় যায়!

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More