অক্ষর-অশ্বিনের দাপটে অলআউট ইংল্যান্ড, শুরুতেই গিলকে ফিরিয়ে বিরাটদের ধাক্কা অ্যান্ডারসনের 

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের বল হাতে দাপট দেখালেন ভারতের দুই স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও অক্ষর পটেল। ফের একবার ব্যাটিং ব্যর্থতার সাক্ষী থাকল মোতেরা। দুই স্পিনার মিলে নিলেন ৭ উইকেট। মূলত তাদের দাপটেই প্রথম ইনিংসে ২০৫ রানে অলআউট হয়ে গেল ইংল্যান্ড। বেন স্টোকস ও ড্যানিয়েল লরেন্স রান না পেলে আরও সমস্যায় পড়তে হত রুটদের।

এদিনও টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট। ভারতীয় দলে বুমরাহ না থাকায় এই ম্যাচে ইশান্তের সঙ্গে সুযোগ পান মহম্মদ সিরাজ। দুই পেসার শুরুটা ভাল করলেও উইকেট পড়েনি। ফলে ষষ্ঠ ওভারে সেই অক্ষর পটেলের হাতে বল তুলে দেন বিরাট। আর নিজের দ্বিতীয় বলেই ডমিনিক সিবলিকে বোল্ড করে ইংল্যান্ডকে প্রথম ধাক্কা দেন অক্ষর।

টেস্ট ক্রিকেটে যেন স্বপ্নের শুরু করেছেন অক্ষর। পরের ওভারেই অপর ওপেনার জ্যাক ক্রলিকেও আউট করেন তিনি। ইংল্যান্ডের ব্যাটিং নির্ভর করছিল অধিনায়ক জো রুটের উপর। কিন্তু তাদের সবথেকে বড় ধাক্কাটা দিলেন সিরাজ। তাঁর বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে মাত্র ৫ রানে ফিরলেন রুট।

৩ উইকেট পড়ে যাওয়ার পরে অবশ্য একটা পার্টনারশিপ গড়েন জনি বেয়ারস্ট ও বেন স্টোকস। লাঞ্চের আগে পর্যন্ত আর উইকেট পড়েনি। কিন্তু লাঞ্চের পরেই ফের ব্রেক থ্রু আনেন সিরাজ। বেয়ারস্টকে ২৮ রানের মাথায় আউট করেন তিনি। তারপরে অলি পোপের সঙ্গে জুটি বাঁধেন স্টোকস। এদিন অনেক সাবলীল লাগছিল স্টোকসকে। হাফসেঞ্চুরিও করেন তিনি। কিন্তু ৫৫ রানের মাথায় ওয়াশিংটন সুন্দরের বলের লাইন মিস করে এলবিডব্লিউ আউট হয়ে ফিরে যান স্টোকস।

টপ অর্ডার ব্যর্থ হলেও ইংল্যান্ডের মিডল অর্ডার এদিন ভাল খেলল। অলি পোপ ধীরে খেললেও এই ম্যাচে দলে ফেরা ড্যানিয়েল লরেন্স বেশ দ্রুত খেলছিলেন। শুরুতেই কয়েকটি চার মারেন তিনি। চায়ের বিরতির পরে পোপকে ২৯ ও ফোকসকে ১ রানের মাথায় অশ্বিন ফেরালেও খেলছিলেন লরেন্স। দেখে মনে হচ্ছিল তিনিও হাফসেঞ্চুরি করবেন। কিন্তু ৪৬ রানের মাথায় ক্রিজ থেকে বেরিয়ে বড় শট খেলতে গেলে অক্ষরের বলে স্টাম্প আউট হন তিনি।

বাকিরা বেশি রান করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত অশ্বিনের বলে জ্যাক লিচ আউট হতেই ২০৫ রানে শেষ হয় ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস। অক্ষর ৪, অশ্বিন ৩, সিরাজ ২ ও সুন্দর ১টি উইকেট নেন।

ভারত ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই ধাক্কা খায়। তৃতীয় বলেই অ্যান্ডারসনের ইনসুইং ডেলিভারি বুঝতে না পেরে শূন্য রানে আউট হন শুভমান গিল। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ বিশেষ ভাল গেল না তরুণ শুভমানের।

প্রথম দিনের বাকি সময়টা অবশ্য সামলে দেন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা ও চেতেশ্বর পুজারা। দিনের শেষে দলের রান ১ উইকেটে ২৪। রোহিত ৮ ও পুজারা ১৫ করে খেলছেন। ইংল্যান্ডের থেকে এখনও ১৮১ রানে পিছিয়ে কোহলিরা।

মোতেরার এই উইকেটে অবশ্য এমন জুজু নেই যাতে খেলা অসম্ভব। একটু সময় কাটাতে পারলেই রান আসবে। ইংল্যান্ডকে কম রানে আটকে দেওয়া গিয়েছে। রোহিতরা চাইবেন দ্বিতীয় দিন প্রথম দুই সেশনের ভাল ব্যবহার করতে। কাল সারাদিন ব্যাট করতে পারলে ইংল্যান্ডের থেকে অনেকটা এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকবে ভারতের কাছে। সেই লক্ষ্যেই আগামীকাল নামবেন রোহিত ও পুজারা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More