যৌনহেনস্থা, মারধর করত বাবর আজম! পাক অধিনায়কের বিরুদ্ধে গর্ভপাতে বাধ্য করার অভিযোগ তরুণীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন এক তরুণী। তাঁর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১০ বছর তাঁকে ব্যবহার করেছেন বাবর। তাঁকে যৌনহেনস্থা ও মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এমনকি তাঁকে জোর করে গর্ভপাতে বাধ্য করারও অভিযোগ তুলেছেন ওই তরুণী। এক সাংবাদিক বৈঠকে এই অভিযোগ এনেছেন তিনি।

শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে ওই মহিলা বলেন, তিনি ও বাবর স্কুলে পড়া থেকে একে অন্যকে চিনতেন। ২০১০ সালে তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দেন বাবর। তারপর বাবরের হাত ধরে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান তিনি। তাঁদের বিয়ে করার কথা ছিল। কিন্তু তারপরেই পাকিস্তানের অনূর্ধ্ব ১৯ দলে বাবর সুযোগ পেয়ে যাওয়ায় তাঁদের বিয়ে তখন হয়নি।

তরুনী অভিযোগ করেছেন, বাবরের কঠিন সময়ে তিনি তাঁর পাশে থেকেছেন। তাঁকে আর্থিক সাহায্যও করেছেন। উলটে বাবর তাঁকে ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ তাঁর। পাকিস্তান দলে সুযোগ পাওয়ার পরেই বাবরের হাবভাব বদলে যায় বলে অভিযোগ তাঁর। তিনি দাবি করেছেন, বাবর তাঁকে যৌনহেনস্থা করেছেন। প্রতিবাদ করলে জুটেছে মারধর। তিনি গর্ভবতীও হয়ে পড়েন। তাঁকে জোর করে গর্ভপাতে বাধ্য করানো হয়েছে বলেও অভিযোগ তরুণীর। এমনকি পুলিশের কাছে গেলে তাঁকে খুনের হুমকিও দিয়েছেন পাক অধিনায়ক।

গত মাসেই পাকিস্তানের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক করা হয়েছে বাবর আজমকে। এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছে দল। তার মধ্যেই এবার বাবরের বিরুদ্ধে এল বিস্ফোরক অভিযোগ। এই অভিযোগের জবাবে এবার পাক ক্রিকেট বোর্ডের তরফে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয় সেটাই দেখার।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More