মাত্র ৯ সেকেন্ড! মোহনবাগান মাঠে আই লিগের ইতিহাসে দ্রুততম গোল তুরসানভের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মোহনবাগান মাঠে নজির সৃষ্টি হল রবিবার আই লিগের ম্যাচে। তাও এমন একজনের পা থেকে সেটি এসেছে, যিনি নিজেও একসময় মোহনবাগানে খেলে গিয়েছেন।

ট্রাউ এফসি-র জার্সিতে রিয়াল কাশ্মীরের বিরুদ্ধে নয় সেকেন্ডে কোমরন তুরসানভ একটি বিশ্বমানের গোল উপহার দিলেন। এটি আই লিগের ইতিহাসে দ্রুততম গোল।

এদিন কিক অফের সঙ্গে সঙ্গে মোহনবাগান মাঠের রামপার্টের দিকে বিপক্ষ বক্সের আট দশ গজ বাইরে একটু ডানদিক ঘেঁষে বল পেয়ে বাঁ-পায়ের জোরালো ভলিতে প্রথম পোস্টের পাশ দিয়ে বল জালে পাঠান। এই গোলের সঙ্গে তাঁর নামের সঙ্গে নজিরও গড়া হয়ে গেল।

তিনি ভেঙে দিলেন ২০১৮-তে ১৫ ডিসেম্বর নেরোকা এফসি-র হয়ে চার্চিল বাদার্সের বিপক্ষে করা এ যাবৎ করা আই লিগের দ্রুততম ১৩ সেকেন্ডের গোলের রেকর্ড। এদিন অবশ্য ম্যাচটি জিততে পারেনি মণিপুরের দলটি। খেলাটি শেষ হয় ১-১ গোলে।

গত মরশুমে আইলিগ জয়ী মোহনবাগানের মিডফিল্ডার তুরসানভ হারুন আমিরির ভুল ক্লিয়ারেন্স থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের জোরাল শটে গোল করেন। এটাই আই লিগের ইতিহাসে দ্রুততম গোল। আগের রেকর্ড ছিল কাটসুমির। ২০১৮-১৯ আই লিগে নেরোকার হয়ে চার্চিলের বিরুদ্ধে ১৩ সেকেন্ডে গোল করেছিলেন কাটসুমি।

গত মরসুমে কিবু ভিকুনার কোচিংয়ে মোহনবাগানের হয়ে চার্চিলের বিরুদ্ধে ২৩ পাসের গোল করেছিলেন কোমরন। সেই গোলের ভিডিও ফেডারেশন কাছে চেয়ে পাঠিয়েছিল ফিফা। সেই ম্যাচে ৩-০ গোলে চার্চিলকে হারিয়েছিল মোহনবাগান।

ম্যাচের শেষে কোমরনের গোল নিয়ে উচ্ছসিত রিয়াল কাশ্মীর কোচ ডেভিড রবার্টসন। তিনি বলেন, ‘‘আমরা শুরুতে তৈরি ছিলাম না। দারুণ গোল করেছে কোমরন। তবে, ভবিষ্যতে আমাদের এই ধরনের ভুল যাতে না হয়, তার জন্য সতর্ক থাকতে হবে। এই ধরনের গোল লিগের মান বাড়িয়ে দেয়।’’

রবিবার কোমরনের রেকর্ডের গোলের পরও এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাঁর দল ট্রাউকে। ৭০ মিনিটে রিয়াল কাশ্মীরের হয়ে গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান অধিনায়ক ম্যাশন রবার্টসন।

 

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More