বাংলা দলে ব্রাত্য ঘরের ছেলেরাই, ইডেনের সামনে বিক্ষোভ সমর্থকদের, তির কর্তাদের দিকেই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বাংলা ক্রিকেটের ব্যর্থতা নিয়ে সিএবি অন্দরে ক্ষোভ দানা বাঁধছে। বাংলা ক্রিকেটের একটা অংশের অভিযোগ, দলে ঘরের ছেলেদেরই উপেক্ষা করা হচ্ছে দিনের পর দিন। যে কারণে তার প্রভাব পড়ছে সর্বভারতীয় টুর্নামেন্টে।

বাংলা দল চলতি মরসুমে দুটি টুর্নামেন্ট খেলেছে, দুটিতেই ব্যর্থ হয়েছে। সৈয়দ মুস্তাক আলি টোয়েন্টি ২০-র পরে বিজয় হাজারে ওয়ান ডে টুর্নামেন্টেও একেবারেই সফল নয়। সার্বিকভাবেই ব্যর্থ হয়েছে তারা।

ভিনরাজ্যের ক্রিকেটারদের দাপট সর্বত্রই। বলা হচ্ছে, দক্ষতাসম্পন্ন ক্রিকেটার নিলে না হয় ঠিক ছিল, যোগ্য ঘরের ছেলেদের বসিয়ে বাইরের রাজ্য থেকে ক্রিকেটার ধরে আনছেন কর্তারা। তাঁদের থেকে ‘মোটা টাকা ডোনেশন’ নিয়ে খেলার ব্যবস্থা করে দেওয়া হচ্ছে। এই নিয়ে শুক্রবার সিএবি-র সামনে বিক্ষোভে শামিল হন কিছু সমর্থক। তাঁদের দাবি ছিল, বাংলা দলে সাতজন ক্রিকেটারই বাইরের। তা হলে এই দলের নাম বাংলা না রেখে অন্য নাম দেওয়া হোক!

ওপেনার অভিমন্যু ঈশ্বরণ থেকে শুরু, সুন্দর রামন, মুকেশ কুমার, শাহবাজ আমেদ, আকাশদীপ সিং, মহঃ কাইফরা সবাই ভিনরাজ্যের। সমর্থকদের দাবি, অন্য দলে সুযোগ না পেয়ে বাংলায় এসেছে কিছু কর্তাদের হাত ধরে। এমনকি বাংলার এক নামী প্রাক্তন ক্রিকেটারও জানিয়েছেন, এই ক্রিকেটাররা বাংলায় খেলতে এসে নিজেদের আধার কার্ড, ভোটার কার্ড করে নিয়েছে দালালদের ধরে। সেই কারণে কেউ কোনও চ্যালেঞ্জও করতে পারবে না।

শুধু তাই নয়, সিএবি ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে তপন মেমোরিয়ালের মতো প্রথম ডিভিশনের ক্লাবেও ১১ জনের মধ্যে দশজনই ভিনরাজ্যের ক্রিকেটার। একটা ঘরোয়া দলেই এই পরিস্থিতি, সেক্ষেত্রে রাজ্য দলেও অনুরূপ ঘটনা ঘটবে, সেই শঙ্কাই দেখছেন সিএবি-র একাংশ।

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More