ওজন ঝরিয়েই কি আরও বেশি তীক্ষ্ণ অশ্বিন, অবাক সতীর্থরাও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রতি ম্যাচে নিজেকে ছাপিয়ে যাচ্ছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভারতীয় শিবিরে নানা গুঞ্জন চলছে। বলাবলি হচ্ছে, কী এমন ঘটল অশ্বিনের জীবনে, যাতে করে তিনি আবারও পুরনো ফর্মে বিরাজ করছেন।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সাফল্যের রহস্য কি বাড়তি ওজন ঝরিয়ে ফেলা? সেই জন্যই কি চেন্নাইয়ের অফস্পিনারকে অপ্রতিরোধ্য দেখাচ্ছে টেস্ট সিরিজে?

‌এমন প্রশ্ন ওঠার কারণও আছে। তিনি নিজেই সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘আগামী তিন-চার বছর যাতে পুরোপুরি ছন্দে থাকতে পারি সেই কারণে লকডাউনে কঠোর পরিশ্রম করেছি। ৭-৮ কেজি ওজন ঝরিয়েছি। তারপর থেকেই আমার পারফরম্যান্স গ্রাফ অনেক উঁচুতে।’’

ওই সময়ে তিনি শুধু জিমই করেননি, উপরন্তু নানা যোগব্যায়াম করে নিজের একাগ্রতা আরও নিবিড় করেছিলেন। এমনকি মেডিটেশন করা শুরু করেন। সদগুরুর নানা ভিডিও দেখে নিজেকে নিভৃতে গড়ে তুলেছিলেন। তারই ফসল পাচ্ছেন এই নামী অফস্পিনার।

সাম্প্রতিককালে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছেন অশ্বিন। সেই ফর্মই ধরে রেখেছেন গোলাপি বলের টেস্টেও। আমেদাবাদে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৭ উইকেট দখলে। বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে জোফ্রা আর্চারকে আউট করার সঙ্গেই পৌঁছে গিয়েছিলেন ৪০০ টেস্ট উইকেটের মাইলফলকে, দ্বিতীয় দ্রুততম হিসাবে। শীর্ষে কিংবদন্তি মুথাইয়া মুরলিধরন। চতুর্থ ভারতীয় হিসেবে এই কীর্তি গড়েছেন অশ্বিন। তাঁর আগে অনিল কুম্বলে (৬১৯), কপিল দেব (৪৩৪), হরভজন সিং (৪১৭)।

লকডাউনের পরে অশ্বিন বিধ্বংসী মেজাজে রয়েছেন। আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলেছেন সেই ছন্দে। তারপর অস্ট্রেলিয়া সফর এবং চলতি ইংল্যান্ড সিরিজ – অশ্বিন সম্ভবত জীবনের সেরা ফর্মে।

একইভাবে ২০১৫-১৬ এবং ২০১৬-১৭ মরসুমেও প্রশংসিত হয়েছিলেন অশ্বিন। তামিল তারকা মোতেরা টেস্ট জেতার পর বলেছেন, ‘‘সবাই এখন একই প্রশ্ন করে চলেছে। যেমন ২০২৫-১৬, ২০১৬-১৭ মরসুমে করেছিল। একটা বিষয় পরিষ্কার, আমি সবসময় উন্নতি করতে চেয়েছি। যদি ভবিষ্যতে আরও উন্নতি করি, নিজে অন্তত অবাক হব না।’’

সব থেকে বড় বিষয়, গত কয়েক বছর তাঁর ফর্ম ছিল পড়তির দিকে। ভাবা গিয়েছিল, অশ্বিন বুঝি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরই নিয়ে ফেলবেন। কিন্তু তিনি দমে যাওয়ার পাত্র নন, সেটি আরও একবার বুঝিয়েছেন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More