এক ওভারে ৩৭ রান, জাদেজাকে দেখে শাস্ত্রীর ভাবনায় সোবার্স, ধোনি বলছেন, বদলে গিয়েছে জাড্ডু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রানগুলি পরপর সাজালে এমন লাগবে, ৬-৬-৭-৬-২-৬-৪। মনে হবে কোনও টেলিফোন নম্বর, কিন্তু রবিবার রবীন্দ্র জাদেজার যিনি ব্যাটিং দেখেছেন, তিনি চোখের আরাম পেয়ে গিয়েছেন।

ব্যাটিং ইনিংসের শেষ ওভারে তিনি বেঙ্গালুরু দলের হর্ষল প্যাটেলকে যে নির্দয়ভাবে মেরে ৩৭ রান নিয়েছেন, তাতে বিশ্বরেকর্ড হয়ে গিয়েছে। জাদেজা হয়তো আনন্দে রাতে ঘুমোতে পারবেন না, তেমনি জাদেজার দুঃস্বপ্নে সারা রাত দু’চোখের পাতা এক করতে পারবেন না হর্ষলও।

চলতি আসরে যিনি ধারাবাহিকভাবে শেষ ওভারটি ভাল করছেন, তাঁকে আক্রমণ করে জাদেজা বোঝালেন তিনি অন্য ধাঁচের ব্যাটসম্যান। রবি শাস্ত্রী তাঁর ব্যাটিং দেখে ‘গ্যারি জাদেজা’ বলে ডাকছেন। তিনি হয়তো গ্যারফিল্ড সোবার্সের কথা বোঝাতে চেয়েছেন।

এমনকি ম্যাচ শেষে দলের নেতা এম এস ধোনিও বলেছেন, ‘‘এই জাদেজা আমাদের কাছে নতুন অবতারে হাজির হলেন। জাড্ডু একেবারে বদলে গিয়েছে। ও এমন একজন ক্রিকেটার, যে নিজের দক্ষতায় যে কোনও অবস্থায় ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে। ওর বোলিং এবং ফিল্ডিং নিয়ে আমরা বরাবর গর্ববোধ করতাম। তবে গত কয়েক বছরে ও ব্যাটসম্যান হিসেবে অনেক উন্নতি করেছে। তাই জাডেজা অবশ্যই যে কোনও দলের সম্পদ। ছন্দে থাকলে দ্রুত রান তুলে আমাদের সুবিধে এনে দিতে পারে।’’

চেন্নাই ব্যাটিং ইনিংসের শেষ ওভাবে হর্ষলের প্রথম বলটি লং অন এবং ডিপ মিড উইকেটের ওপর দিয়ে মাঠের বাইরে পাঠান জাডেজা। পরের বলটি ইয়র্কার দিতে গিয়ে ফুল টস দিয়ে ফেলেন হর্ষল, ছক্কা মারতে সমস্যা হয়নি জাডেজার। তৃতীয় বলটি উচ্চতার জন্য ‘নো’ হয়। ডিপ মিড উইকেট দিয়ে ছক্কা মারেন তিনি।

এরপর মন্থর গতিতে শর্ট বল করেন পটেল। কিন্তু অফ স্টাম্পের অনেক বা‌ইরে বল ফেলেন তিনি। মাঠের বাইরে পাঠান জাডেজা। চতুর্থ বলে ২ রান হয়। অফ স্টাম্পের বাইরে ফুল টস ছিল। পঞ্চম বলটি আবার ফুল টস দেন বোলার, লং অনের ওপর দিয়ে ছক্কা মারেন জাদেজা, শেষ বলে অল্পের জন্য ছয় হয়নি। স্কোয়্যার লেগ দিয়ে চার হয়। শেষ পর্যন্ত ২৮ বলে ৬২ রান করে অপরাজিত থাকেন ধোনির স্যার।

২০১১ আইপিএল-এ ক্রিস গেইল আরসিবি-র হয়ে এক ওভারে ৩৬ রান নেন। গেইল, জাদেজার পর এই তালিকায় রয়েছেন সুরেশ রায়না। তিনি ২০১৪ সালে এক ওভারে ৩২ রান নেন।

বিরাট কোহলি (২০১৬), প্যাট কামিন্স (২০২১), ক্রিস গেইল (২০১২), বীরেন্দ্র সেহওয়াগ (২০০৮), রাহুল তেওটিয়া (২০২০), শন মার্শ (২০১১) প্রত্যেকে এক ওভারে ৩০ রান তুলেছেন।

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More