৭ সেকেন্ডে গোল করে বিশ্বকে চমকে দিলেন মিলানের স্ট্রাইকার লিয়াও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এমন গোল কখনও দেখেনি বিশ্ব। ম্যাচ শুরুর বাঁশি বাজালেন রেফারি, বল নিয়ে ছুটল মিলানের ফুটবলাররা। সেই দৌড়েই বিপক্ষ সাসসুয়োলোর জালে বল ঠেললেন ! ৬.২ সেকেন্ডে গোল করে বসলেন মিলানের স্ট্রাইকার রাফায়েল লিয়াও। সিরি এ-তে দ্রুততম গোলের রেকর্ড তো বটেই, ফুটবল দুনিয়ায় কেউ করেছেন কিনা সন্দেহ।

সাসসুয়োলোর বিপক্ষে দ্রুত গোল দরকার ছিল এসি মিলানের। লিগে টানা দুই ম্যাচ ড্র করেছে মিলান। তাদের প্রায় ধরে ফেলেছে জুভেন্টাস ও ইন্টার মিলান। মিলান কোচ স্তেফানো পিউলি তাই দাপট দেখিয়ে শুরু করতে বলেছিলেন দলের ফুটবলারদের।

শনিবারই লিগ টেবিলের শীর্ষে মিলানের কাছে চলে এসেছে জুভেন্টাস। রবিবার প্রতিপক্ষের মাঠে তাই ব্যবধান বাড়িয়ে নেওয়ার চ্যালেঞ্জ ছিল মিলানের। বহু দিন পর লিগে সেই পুরোনো মিলানের দেখা মিলছে।

ম্যাচ শুরুর বাঁশি বাজতেই ব্রাহিম দিয়াজ বল দিলেন হাকান চালহানলুর কাছে। সেই বল ফেরত চাইছিলেন বারবার দিয়াজ, কিন্তু ড্রিবলিং করে ছুটে যাওয়া চালহানলু থামছিলেন না। প্রায় অর্ধেক পেরিয়ে যাওয়ার পর হঠাৎ বল বাড়িয়ে দিলেন পর্তুগিজ লিয়াওর দিকে। তিনি আর ভুল করেননি, বল জালে ঠেলে দেন। ঘড়িতে সেইসময় সাত সেকেন্ড হয়েছে খেলার বয়স।

কিছুটা বিস্ময় নিয়েই লিয়াওর সঙ্গে গোলের উল্লাসে মেতে উঠলেন সতীর্থরা। এ গোল যে সিরি ‘আ’র সবচেয়ে দ্রুততম সে তথ্য তখনই ছড়িয়ে পড়ল। ২০০১ সাকে ফিওরেন্টিনার বিপক্ষে পিয়াচেঞ্জার হয়ে পাওলো পঞ্জী ৮.১ সেকেন্ডে গোল করেছিলেন। সেই রেকর্ড ১৯ বছর পর ভেঙে গেল এক তরুণের কাছে।

লিয়াওর এ গোল যে ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগেরই দ্রুততম।  বুন্দেসলিগার এ রেকর্ড ৯.২ সেকেন্ডের। ২০১৪ সালে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে বেয়ার লিভারকুসেনের করিম বেলারাবিও ম্যাচের প্রথম আক্রমণেই গোল করছিলেন। ফরাসী লিগের সবচেয়ে দ্রুতগতির গোলটি মিকেল রিওর। কানের বিপক্ষে ১৯৯২ সালে ম্যাচের ৮ সেকেন্ডেই গোল করেছিলেন রিও। সবাইকে ছাপিয়ে গেলেন রাফায়েল।

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More