এটিকে-র সঙ্গে বিচ্ছেদ চেয়ে পথে নামলেন মোহনবাগান সমর্থকরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এটিকে-র সঙ্গে সংযুক্তিকরণের বিপক্ষে গিয়ে মোহনবাগান সমর্থকরা এবার পথে নামলেন। রবিবার দুপুরে তাঁরা একই সঙ্গে ক্লাব তাঁবু ও ভিক্টোরিয়া হাউসে গিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন।

এই বিতর্ক বহুদিন ধরেই চলছে। সবুজ মেরুন সমর্থকদের দীর্ঘদিনের দাবি, মোহনবাগানের মতো ঐতিহ্যশালী প্রতিষ্ঠানের আগে কোনও অংশীদার কোম্পানির নাম থাকবে না। তারা যে কোনও প্রতিযোগিতা খেলবে শুধুই মোহনবাগান নামে। সেই কারণেই # রিমুভ এটিকে দাবিকে সামনে রেখে তারা এতদিন সোচ্চার ছিলেন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে।

রবিবার ওই সমর্থকরাই পথে নেমে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তাঁদের দাবি মূলত তিনটি, কোনওভাবেই মোহনবাগানের নামের সঙ্গে এটিকে লেখা যাবে না, তাতে ক্লাবের ব্র্যান্ড ইমেজ কাজে লাগাচ্ছে এটিকে-র মতো অংশীদাররাই। দ্বিতীয়ত, এটিকে-র গত মরসুমের জার্সি পরে খেলতে পারবেন না ফুটবলাররা। ওই জার্সিতে সবুজ মেরুনের কোনও চিহ্ন নেই, বরং জার্সিটি একেবারেই কালো। তিন, এটিকে আধিকারিকদের ক্লাব সমর্থকদের আবেগকে গুরুত্ব দিয়ে চলতে হবে।

এটিকে-মোহনবাগান শীর্ষ আধিকারিকরা এই বিক্ষোভকে গুরুত্ব দিতে চাইছেন না। তাদের এক কর্তা জানিয়েছেন, এই দাবিগুলো ঠিক নয়, প্রথমটিতে একেবারেই নয়। কারণ সিইএসসি আমাদের পিছনে বিনিয়োগ করছে। এটিকে গত মরসুমের আইএসএল চ্যাম্পিয়ন ক্লাব, আমরাও আই লিগ খেতাব জয়ী, তাই দুটি দলের সংযুক্তি কখনই অন্যার্য্য নয়।

তার থেকেও বড় বিষয় হল, এটিকে ক্লাবের তো কোনও অস্তিত্বই নেই, সেই কারণেই তাদের আলাদা ক্লাব নামে চিহ্নিত করা হচ্ছে কেন? আর যারা বিনিয়োগ করছে, তাদের কথা অগ্রাধিকার পায়, সেটি লিখিত চুক্তিতেই রয়েছে। তাই এই দাবি মানা সম্ভব নয়। কেউ কেউ বলছেন, শুভ পরিণয় সম্পন্ন হয়ে যাওয়ার পরে কেউ যদি একবছরের মধ্যেই বিচ্ছেদ চায়, সেটি কী সম্ভব? কারণ আমাদের দুই অংশীদারের মধ্যে সম্পর্কের কোনও অবনতি ঘটেনি, তাই এই নিয়ে দাবি ঠিক নয় সমর্থকদের।

সবুজ মেরুন সমর্থকদের দাবি, দলগঠনের সময় মোহনবাগান কর্তাদের কোনও মতামত গ্রাহ্য হচ্ছে না। সব সিদ্ধান্তই নিচ্ছেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কাদের প্রতিনিধিরা। তা হলে এই সংযুক্তিকরণের মূল্য কী রয়েছে। সেই হিসেবেই ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন নিয়ে সমর্থকদের একাংশ ভিক্টোরিয়া হাউসে বিক্ষোভ দেখান, এমনকি তাঁরা গিয়েছিল ময়দানের ক্লাব তাঁবুতেও। আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি মোহনবাগান ক্লাবের বার্ষিক সভা রয়েছে, ওই সভার আগেও প্রতিবাদে মুখর হবেন সমর্থকরা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More