করোনায় চলে গেলেন মস্কো অলিম্পিকে ভারতীয় হকি দলের তারকা রবিন্দর পাল সিং

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা কেড়ে নিল আরও এক ক্রীড়ানক্ষত্রের প্রাণ। চলে গেলেন হকিতে ভারতীয় দলের নামী প্রাক্তন তারকা মস্কো অলিম্পিকে সোনাজয়ী দলের সদস্য রবিন্দর পাল সিং।

তিনি কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন গত ২৪ এপ্রিল। তারপর চিকিৎসার পরে তাঁর নেগেটিভ রিপোর্টও আসে। তাঁকে নন কোভিড হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু গতকাল রাত থেকে ফের তিনি অসুস্থ বোধ করতে থাকেন। শনিবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ লক্ষ্ণৌয়ের হাসপাতালে তাঁর জীবনাবসান ঘটে। বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

অলিম্পিক হকিতে ভারত শেষ সোনা জিতেছে ১৯৮০-‌তে মস্কোয়। সেই দলের মাঝমাঠের খেলোয়াড় রবিন্দরপাল ১৯৮৪-‌র লস এঞ্জেলেস অলিম্পিকেও ভারতের হয়ে খেলেছেন। মস্কোর মতো লস এঞ্জেলেসেও ভারতের কোচ ছিলেন বালকিষেন সিং।

সোনা জিতলেও মস্কোর পরই বালকিষেন মনে করেছিলেন, আধুনিক হকিতে ২-‌৩‌-‌৫ ছক অচল। পরিবর্তন আনতে হবে ওই ছকে। এনেওছিলেন। লস এঞ্জেলেস অলিম্পিকেই ভারত প্রথম খেলেছিল ২-‌৪-‌৪ ছকে। তিনের পরিবর্তে চার হাফ, আর পাঁচের বদলে চার ফরোয়ার্ড।

এই নতুন ছকে বালকিষেনের সেই দলের মাঝমাঠের বড় ভরসা ছিলেন রবিন্দর। লক্ষ্ণৌয়ের স্পোর্টস হস্টেল থেকে উঠে এসে দুটি অলিম্পিক ছাড়াও বিশ্বকাপ, এশিয়া কাপ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি-‌সহ নানা আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় ভারতের হয়ে খেলেছেন। একসময় কলকাতায় খেলে গিয়েছেন মোহনবাগানের হয়ে।

দুটি অলিম্পিক্স ছাড়াও রবিন্দর ১৯৮০ এবং ১৯৮৩ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও খেলেছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে শোকাহত কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রী কিরেন রিজিজু টুইট করেছেন, ‘‘রবিন্দর পাল সিংহের মৃত্যুতে আমি গভীর ভাবে শোকাহত। ১৯৮০ সালে মস্কো অলিম্পিক্সের সোনাজয়ী হকি খেলোয়াড়কে হারাল ভারত। ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রে ওঁর অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।’’

হকি থেকে অবসর নিয়েছিলেন একটু তাড়াতাড়িই, চোটের কারণে। অকৃতদার রবিন্দর পাল স্টেট ব্যাঙ্কের চাকরি থেকেও নিয়েছিলেন স্বেচ্ছাবসর।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More