সৌরভ সামান্য অর্থের জন্য কেন বোর্ড সভাপতি হয়ে ফ্যান্টাসি অ্যাপের প্রচার করলেন, প্রশ্ন তুললেন রামচন্দ্র গুহ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমণ করলেন নামী ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ। তিনি প্রবল সমালোচনা করেছেন ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা প্রাক্তন অধিনায়কের। তিনি পরিষ্কার বলেছেন, সৌরভ স্রেফ অর্থের জন্য নানা কর্মকান্ডে জড়িয়ে যাচ্ছেন, যা কখনই উচিত নয়। সৌরভ যে বোর্ড প্রেসিডেন্টের চেয়ারকে ব্যবহার করছেন, সেটিও আকারে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন।

গত তিনবছর আগে ভারতীয় ক্রিকেটে আমূল সংস্কারের প্রধান ব্যবস্থাপক হিসেবে রামচন্দ্র গুহ দারুণ পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপে যে চার সদস্যের কমিটি হয়, তার অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। প্রশাসক কমিটির সদস্য হয়েও বোর্ডের সংস্কৃতিতে খুব একটা পরিবর্তন আনতে না পেরে সে বছরের জুনেই সরে দাঁড়িয়েছিলেন।

যত দিন দায়িত্বে ছিলেন, তত দিন ভারতীয় ক্রিকেটে স্বেচ্ছাচারিতা, অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি দূর করার চেষ্টা চালিয়েছিলেন। চেষ্টা করেছিলেন কিছু বদল আনতে। বিদায়ী চিঠিতে বেশ কিছু পরামর্শও দিয়েছিলেন।

যদিও তিনি বর্তমানে সৌরভ যেভাবে বোর্ড চালাচ্ছেন, তাতে তিনি অখুশি। তিনি জানিয়েছেন, ‘‘সৌরভ অর্থের লোভ সামলাতে পারছেন না, তাই ফ্যান্টাসি অ্যাপের বিজ্ঞাপন করলেন কোনওকিছু না ভেবেই। এভাবে কোনও বোর্ড প্রেসিডেন্ট আইপিএলের সময় ওই অ্যাপের হয়ে বলতে পারেন, আমার জানা নেই।’’

আইপিএল নিয়ে চালু হওয়া এক ফ্যান্টাসি অ্যাপের বিজ্ঞাপনে সৌরভ উজ্জ্বল ছিলেন। ওই বিজ্ঞাপনে নিজের পছন্দের একাদশ বানাতে বলা হতো সবাইকে। আর মাঠে খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সের ওপর পয়েন্ট পেতেন ব্যবহারকারীরা। সৌরভ বলতেন দল বানিয়ে তাঁর চেয়ে বেশি পয়েন্ট আদায় করে দেখাতে। সৌরভ ছাড়া আরও বেশ কয়েকজন তারকা এই অ্যাপের বিজ্ঞাপন করেছিলেন।

একজন বোর্ড সভাপতি কেন এভাবে ফ্যান্টাসি অ্যাপের বিজ্ঞাপনে অংশ নেবেন, এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রামচন্দ্র। নতুন একটি বই লিখেছেন এই লেখক, ‘‘দ্য কমনওয়েলথ অব ক্রিকেট: আ লাইফলং লাভ অ্যাফেয়ার উইথ দ্য মোস্ট সাটল অ্যান্ড সফিস্টেকেটেড গেম নোন টু হিউম্যানকাইন্ড।’’

তিনি বইয়ে উল্লেখ করেছেন, ‘‘দেশের ক্রিকেটাররা অনৈতিকভাবে নানা বেআইনি অ্যাপের বিজ্ঞাপন করছেন স্রেফ অর্থের জন্য। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে টাকার এত লোভ খুবই বিস্ময়কর। আমার বইয়ের সবচেয়ে ভাল গল্পটা হল বিষেণ সিং বেদির। যিনি বলছেন ক্রিকেটের জন্য কাবুলেও (কোচিং করাতে) যেতে রাজি আছেন, কিন্তু অর্থের জন্য কোথাও যাবেন না। তাই যদি হয়, তা হলে সৌরভ কেন এমন করছেন, তাতে ওঁর নৈতিক মান দিনদিন কমতে বাধ্য।’’

এই নামী ইতিহাসবিদ সর্বভারতীয় একটি দৈনিকে আরও জানিয়েছেন, ‘‘সৌরভ নিজের কাজটি ঠিকঠাক করছেন না। বরং তাঁকে সামনে রেখে কাজ করিয়ে দিচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং প্রাক্তন বোর্ড সভাপতি এন শ্রীনিবাসন।’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট তো আসলে চালাচ্ছে এন শ্রীনিবাসন ও অমিত শাহ। রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলিতে বসে রয়েছে কারোর পুত্র কিংবা কন্যা, আর রঞ্জিতে ক্রিকেটাররা বেতন পাচ্ছেন অনেক দেরিতে।’’

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More