একে অপরের সাক্ষাৎকার নিলেন কোহলি ও স্মিথ, দুই তারকাই নেই উইজডেনের বর্ষসেরা দলে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অ্যাডিলেড টেস্টে নামার আগে দুই দলের দুই মহাতারকাকে বসিয়ে দিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। বিরাট কোহলি ও স্টিভ স্মিথ একে অপরের সাক্ষাৎকার নিলেন। ওই সাক্ষাৎকারে স্মিথ জানিয়ে দিলেন, তিনি ক্রিকেট জীবন শুরু করেছিলেন লেগস্পিনার হিসেবে। সেই হিসেবেই অজি দলে স্থান ঘটেছিল। তারপর বোলিং ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মনোনিবেশ করতে তাঁর জীবনটাই বদলে গিয়েছিল।

কোহলিও সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তাঁর উঠে আসার গল্প। প্রথম কবে স্মিথের সঙ্গে তাঁর দেখা হয়েছিল, সেই কথা জানাতে গিয়ে অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের কথা বলেছেন।

প্রসঙ্গক্রমে এসেছে স্মিথকে যখন গ্যালারি থেকে আক্রমণ করা হয়েছিল চিটার হিসেবে, সেইসময় রুখে দাঁড়িয়েছিলেন কোহলিই। সেই কথাও উঠে এসেছে সাক্ষাৎকার পর্বে। সেই নিয়ে ভারত অধিনায়ক বলেন, ওটা একটা দুর্ঘটনা ছিল, তোমরা ভুল করে এমন করেছিলে। তবে কোহলি জানিয়ে দিয়েছেন, টেস্ট ম্যাচে মাঠের লড়াই মাঠেই হবে, কেউ যেন কথায় কাউকে আক্রমণ না করে, সেটা মনে করিয়ে দিয়েছেন।

এদিকে, এবারের উইজডেনের বর্ষসেরা দলে বিরাট ও স্মিথের কেউই নেই। শুধু চলতি বছর নয়, উইজডেন বিবেচনায় নিয়েছে ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে ১১ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত ২৩টি টেস্ট ম্যাচের পারফরম্যান্স। এর ভিত্তিতে বাছাই করা সেরা টেস্ট একাদশে জায়গা হয়নি বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা দুই ব্যাটসম্যানের।

নিউজিল্যান্ডের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন দলের অধিনায়কত্ব করবেন। গ্লাভস হাতে উইকেট সামাল দেবেন কুইন্টন ডি কক। এছাড়া ওপেনার হিসেবে থাকছেন ইংল্যান্ডের ডম সিবলি ও পাকিস্তানের শান মাসুদ। মিডলঅর্ডারে উইলিয়ামসনের সঙ্গে আছেন বাবর আজম ও মার্নাস লাবুশেন।

এই সময়ের মধ্যে ৩ ম্যাচ খেলেছেন স্মিথ, ঝুলিতে কোনও সেঞ্চুরি নেই। এই ৩ ম্যাচের পাঁচ ইনিংসে ৪২.৮০ গড়ে মাত্র ২১৪ রান করতে পেরেছেন স্মিথ।

অন্যদিকে এ সময়ের মধ্যে বিরাট কোহলি খেলেছেন মাত্র দুই টেস্ট। যেখানে তাঁর সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি মাত্র ১৯ রানের। সবমিলিয়ে ৯.৫০ গড়ে ৩৮ রানের বেশি করতে পারেননি কোহলি। ফলে এই একাদশে তাঁর থাকার প্রশ্নই আসে না। শুধু কোহলি নন, উইসডেনে বর্ষসেরা একাদশে নেই ভারতের কোনও ক্রিকেটার।

উইজডেনের বর্ষসেরা টেস্ট একাদশ :

ডম সিবলি (ইংল্যান্ড), শান মাসুদ (পাকিস্তান), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড, অধিনায়ক), বাবর আজম (পাকিস্তান), মার্নাস লাবুশেন (অস্ট্রেলিয়া), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), কুইন্টন ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা, উইকেটরক্ষক), কাইল জেমিসন (নিউজিল্যান্ড), টিম সাউদি (নিউজিল্যান্ড), স্টুয়ার্ট ব্রড (ইংল্যান্ড) ও নাথান লিয়ন (অস্ট্রেলিয়া)।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More