ভারতের বিপক্ষে সিরিজের আগে ‘হারানো জিনিস’ খুঁজে পেলেন স্মিথ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সদ্য সমাপ্ত আইপিএলে তিনি ভাল খেলতে পারেননি মোটেই। তাই নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে বিস্তর। রাজস্থান রয়্যালস তাঁকে দলে নিয়েছিল দশ কোটির বিনিময়ে, কিন্তু কিছুই বিশেষ পায়নি। মাত্র ২৬ রান গড়ে তিনি শেষ করেছেন, স্ট্রাইকরেটের অবস্থাও ভাল ছিল না।

বিশ্বে কিছু ক্রিকেটার রয়েছেন, যাঁরা মশলাদার ক্রিকেটে ভাল খেলতে না পারলেও দেশের হয়ে নামলেই ফর্মে ফিরে যান। সেরকমই হলেন অস্ট্রেলিয়ার নামী তারকা স্টিভ স্মিথ। যিনি ভারতের বিপক্ষে সিরিজে নামার আগে ফের চনমনে, এবং সেরা ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন।

আইপিএলে ব্যর্থ হতেই তিনি দেশে ফিরে নেটে ডুবে গিয়েছিলেন। চলতি মাসের গোড়া থেকে তিনি ক্রিকেটে নেই, কিন্তু তা হলে কী হবে দেশে ফিরে বসে থাকেননি। নেটে অস্ট্রেলিয়া দলের বোলারদের বিপক্ষে খেলেই নিজের সেরাটা খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করছেন। তিন সপ্তাহেই সাফল্যের দেখা পেয়েছেন।

স্মিথ নিজেই দাবি করেন, ক্রিকেটই তাঁর ধ্যানজ্ঞান। প্রতিটি মুহূর্ত নিজের খেলা ভাল করার পেছনেই ব্যয় করেন। কিন্তু করোনার কারণে বহুদিন অনুশীলন ও প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট থেকে বাইরে ছিলেন।

আইপিএলেও তাঁর ব্যাটিংয়ে ছন্দ ছিল না। কিন্তু নেটে ফিরে তিনি খুঁজে পেয়েছেন তাঁর সেই পুরনো ফর্ম, সেই পুরনো মেজাজ। যা বছর দুয়েক আগে তাঁকে ডন ব্র্যাডম্যানের রেকর্ডের কাছে নিয়ে গিয়েছিল। স্মিথ জানিয়েছেন, ভারতের বিপক্ষে সিরিজ শুরুর আগেই খুঁজে পেয়েছি, যা আমি খুঁজে চলেছিলাম। ব্যাট ঠিক জায়গায় যাচ্ছে, যেখানে মারতে চাইছি, সেখানেই যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেছেন, আমার এত সময় লাগার কথা ছিল না, কিন্তু করোনা কালে আমি চার মাস ব্যাটই ধরিনি, তাই একটু সমস্যা হচ্ছিল।

স্মিথ যখনই এমন কথা বলেন, বিপক্ষের চিন্তার অন্ত থাকে না। কারণ ২০১৭-১৮ মরসুমে অ্যাসেজের আগেও এমন বলেছিলেন, আর ইংল্যান্ডকে একাই দুরমুশ করে শেষ করেছিলেন ব্র্যাডম্যানীয় ১৩৭.৪০ গড়ে। টেস্ট রেটিংয়ে ইতিহাসে ব্র্যাডম্যানের সবচেয়ে কাছে চলে গিয়েছিলেন স্মিথ।

এমনকি ২০১৫-১৬ মরসুমে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পার্থ টেস্টের আগে প্রথম নতুন কিছু খুঁজে পাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন। সেই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন। পরের টেস্টই ছিল প্রথম দিনরাতের টেস্ট। রান পাওয়া কঠিন হয়ে উঠেছিল সেই ম্যাচে। অ্যাডিলেডেও ম্যাচের সর্বোচ্চ ৫৩ এসেছিল স্মিথের ব্যাট থেকে। পরের দুই সিরিজে ২১৪ ও ১৩১ গড় ছিল স্মিথের!

ভারতের বিপক্ষে বরাবরই ভাল খেলেন স্মিথ। সব মিলিয়েই ভারতের বিপক্ষে স্মিথের গড় ৬৯.৪১, অথচ গত ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরে তিনি খেলতে পারেননি নির্বাসিত থাকায় বল বিকৃতির অভিযোগে। তাই তিনি জানিয়েছেন, ‘‘আমি বড় সিরিজে সেরাটা দিতে পছন্দ করি, সে অ্যাসেজ বলুন কিংবা ভারতীয় দলের বিপক্ষে। এবং অবাক করার মতো ঘটনা ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট রান পেলে পরের ম্যাচগুলিতেও রান আসে আমার ব্যাট থেকে।’’

সেক্ষেত্রে বোঝাই যাচ্ছে, বিরাট কোহলির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভালই প্রস্তুতি সেরেছেন খেলতে নামার আগে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More