‘এবার নিশ্চয়ই পন্থ-অশ্বিন-পুজারার গুরুত্ব বোঝা যাচ্ছে’, নিন্দুকদের কটাক্ষ সৌরভের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অস্ট্রেলিয়া কার্যত ধরেই নিয়েছিল, হারিয়ে দিয়েছে ভারতকে। কিন্তু ধৈর্য আর টেকনিকের মিশেলে হারা ম্যাচ ড্র করে সমতায় সিরিজ বাঁচিয়ে রেখেছে টিম ইন্ডিয়া। তারপরেই নিন্দুকদের জবাব দিতে চাইলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

এদিন টুইট করে সৌরভ বলেন, “এবার আশা করি বোঝা যাচ্ছে দলে পুজারা, অশ্বিন এবং পন্থের গুরুত্বটা ঠিক কতটা! ভাল বোলিংয়ে লাইনআপের বিরুদ্ধে টেস্টে তিন নম্বরে ব্যাট করাটাও একটা বড় কাজ।” অশ্বিনের নাম না করেই সৌরভ বলেছেন, প্রায় ৪০০ উইকেট নেওয়াটা মামুলি ব্যাপার নয়।

সিডনি টেস্টের পঞ্চম দিনে হ্যাজলউডের বলে বোল্ড হয়ে চেতেশ্বর পুজারা যখন প্যাভিলিয়নে ফিরলেন তখনও খেলা শেষ হতে বাকি ৪৪ ওভার। স্কোরবোর্ডে দেখাচ্ছিল, ২৭২ রানে ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছে ভারতের। বাইশ গজে তখন চোট পাওয়া হনুমা বিহারি। সবারই ধারণা ছিল এরপর হয়তো জাডেজা। কিন্তু তা হয়নি। ড্রেসআপ করেও জাডেজা বসে রইলেন। নামলেন রবিচন্দ্রণ অশ্বিন।

তারপর অস্ট্রেলিয়ার ঘরের মাঠে যা হল তা কার্যত ইতিহাস। শরীরের সর্বাঙ্গে আঘাত পেয়েও দাপটে ব্যাটিং করে গেলেন অশ্বিন। অফ ফর্মে থাকা বিহারি সম্ভবত জীবনের সেরা ইনিংস উপহার দিলেন। ন্যাথন লিওঁকে গোটা দিনে যে ভাবে সামলালেন, তা এককথায় অনবদ্য। চাপের মুখে এই দুই ব্যাটসম্যানের পিচ কামড়ে পড়ে থাকা ভারতের হার বাঁচিয়ে দিয়েছে।

পন্থের কিপিং নিয়ে অনেক সমালোচনা হয়েছে। তা ছাড়া অশ্বিনও টিমের বাইরে ছিলেন বড় সময়। কিন্তু এদিন যেন সব জবাব দিয়ে দিলেন তাঁরা। অস্ট্রেলিয়ার দোর্দণ্ডপ্রতাপ বোলিং লাইনআপের সামনে একটুও এদিক ওদিক হল না ফুটওয়ার্ক। সৌরভ যেন বুঝিয়ে দিলেন, বুঝেই টিমে নেওয়া হয়েছে এঁদের। মহারাজ হয়তো এটাও বোঝাতে চাইলেন, সমালোচনা করার আগে যেন দু’বার ভাবেন প্রাজ্ঞরা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More