জয় চেন্নাইয়ের, বড় ম্যাচে চোটে ছিটকে গেলেন সুসাইরাজ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভাবা গিয়েছিল চেন্নাইয়ান সিটি এফসি সহজে ম্যাচ বের করে দেবে। কিন্তু জামশেদপুর খেলায় ফিরে এলেও শেষে জয় পায়নি তারা।

দারুণ এক ম্যাচ হল আইএসএলে মঙ্গলবার। বিরতির আগেই ৩ গোলের রোমাঞ্চকর লড়াই উপহার দিলেন ফুটবলাররা। ম্যাচের শুরুতে প্রথম মিনিটেই গত বারের আইএসএলের রানার্স দল চেন্নাইয়ান এফসি এগিয়ে যায়। গোল করে এগিয়ে দেন ভারতীয় ফুটবলের নামী তারকা অনিরুদ্ধ থাপা। দূরপাল্লার শটে মাত্র ৫৩ মিনিটে অনিরুদ্ধ গোল করে চমকে দেন। জামশেদপুরের রক্ষণভাগ অগোছালো অবস্থাতেই গোল হজম করে তারা।

এটাই চলতি মরসুমের আইএসএলে দ্রুততম গোল। এরপর ২৬ মিনিটে ম্যাচের দ্বিতীয় গোল। পেনাল্টি থেকে ইসমা গোল করে দলকে চেন্নাইয়ান এফসিকে ২-০ এগিয়ে দেন। সেইসময় ভাবা গিয়েছিল বিপক্ষ দল হয়তো পেরেই উঠবে না, কিন্তু সারা ম্যাচে জামশেদপুরও লড়াই করেছে ভালই।

বিরতির পাঁচ মিনিট আগেই জামশেদপুরের হয়ে গোল দেন ভালস কিস, জ্যাকি চাঁদের ক্রস থেকে হেডে বল জালে রাখেন। গত বছরে ভালসকিস চেন্নাইয়ের হয়ে ২০টি গোল করে টুর্নামেন্টের সোনার বুট পান। এবার দল বদলের পর জামশেদপুরের হয়ে দুরন্ত ফর্মে শুরু করলেন ভালসকিস। শেষ পর্যন্ত প্রথমার্ধ শেষে চেন্নাইয়ান এফসি জামশেদপুরের থেকে ২-১ এগিয়ে মাঠ ছাড়ে।

বাকি ম্যাচে দুটি দল সমানে লড়াই করেছে, গোলও মিস করেছে প্রচুর, কিন্তু প্রথমার্ধের ফলই থেকে যায় শেষমেশ। তবে অনবদ্য একটি ম্যাচ হয়েছে এদিন।

এদিকে, চোটের কারণে পুরো আইএসএল থেকেই ছিটকে গেলেন মোহনবাগানের তারকা সুসাইরাজ। গত কেরলের বিপক্ষে ম্যাচে তিনি ১৪ মিনিটে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন, ভাবা গিয়েছিল পরের ডার্বি ম্যাচেই তিনি খেলবেন, কিন্তু এই ডিফেন্ডারের সরে যাওয়ার পরে দলের ভরসা হতে পারেন বঙ্গসন্তান শুভাশিস বসু। তাঁকেই কোচ হাবাস তৈরি রাখছেন বড় ম্যাচের জন্য।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More